সালাউদ্দিন কাদেরের ছেলে গ্রেফতার, কারাগারে প্রেরণ

সাত বছর আগের একটি মারামারির মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে ঢাকা মহানগর পুলিশের উপকমিশনার মুনতাসীরুল ইসলাম জানিয়েছেন।

সাত বছর আগের একটি মারামারির মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে ঢাকা মহানগর পুলিশের উপকমিশনার মুনতাসীরুল ইসলাম জানিয়েছেন। একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় সাজাপ্রাপ্ত সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ধানমণ্ডি থানার পুলিশ হুম্মাম কাদের চৌধুরীকে সিএমএম আদালতে পাঠায়। আদালতে তার পক্ষে জামিন আবেদন করেন আইনজীবী ফায়েকুজ্জামান ফিরোজ। জামিন শুনানির জন্য রোববার ধার্য করে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মেহের নিগার সূচনা হুম্মাম চৌধুরীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সাত বছর আগের একটি মারামারির মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে ঢাকা মহানগর পুলিশের উপকমিশনার মুনতাসীরুল ইসলাম জানিয়েছেন। তিনি বলেন, “২০০৮ সালের জুলাই মাসের একটি মারামারির মামলায় ধানমন্ডি থানার পুলিশ আজ (শনিবার) তাকে গ্রেফতার করেছে।”

ধানমন্ডির বাসা থেকে সকালে গ্রেফতারের পর হুম্মামকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

ধানমণ্ডি থানার ওসি নূরে আজম মিয়া বলেন, ‘২০০৮ সালে গুলশান এলাকায় মারামারির ঘটনার চার্জশিটভূক্ত আসামি হুম্মাম কাদের চৌধুরী। এই মামলায় তাকে ধানমণ্ডি থেকে গ্রেফতার করা হয়।’

সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বাড়ির কেয়ারটেকার ইদ্রিস মিয়া বলেন, ‘সকাল ১১টার দিকে ধানমণ্ডি থানা পুলিশের একটি দল বাসায় প্রবেশ করে। এরপর ১১টা ২০ মিনিটের দিকে হুম্মাম কাদেরকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। এসময় ম্যাডাম (সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর স্ত্রী) উপস্থিত ছিলেন।’

এদিকে হুম্মামের বিরুদ্ধে বাবা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর যুদ্ধাপরাধের রায় ফাঁসের মামলাও রয়েছে। যেখানে তিনি জামিনে রয়েছেন। সেই মামলায় মা ফারহাত কাদের চৌধুরীও আসামি।

সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর দুই ছেলে এক মেয়ের মধ্যে সবার বড় মেয়ে ফারদিন কাদের চৌধুরী। আর বড় ছেলে ফজলুল কাদের চৌধুরী এবং ছোট ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরী।

হুম্মাম কাদের চৌধুরী ব্যক্তিগত জীবনে এখনো অবিবাহিত। তিনি পারিবারিক ব্যবসা জাহাজ ও তেল ব্যবসার প্রতিষ্ঠান কিউসি গ্রুপের সাথে জড়িত।

হুম্মামের বিরুদ্ধে সালাহউদ্দিন কাদেরের একাত্তরের যুদ্ধাপরাধ মামরার রায় ফাঁসের মামলাও রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *