‘ক্রিকেটের কণ্ঠস্বর’ রিচি বেনো আর নেই

চলে গেলেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি ক্রিকেটার রিচি বেনো। প্রাক্তন এই অজি লেগ স্পিনার ক্রিকেটারের পাশাপাশি ধারাভাষ্যকার হিসেবেও পেয়েছিলেন তুমুল জনপ্রিয়তা।

চলে গেলেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি ক্রিকেটার রিচি বেনো। প্রাক্তন এই অজি লেগ স্পিনার ক্রিকেটারের পাশাপাশি ধারাভাষ্যকার হিসেবেও পেয়েছিলেন তুমুল জনপ্রিয়তা।চলে গেলেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি ক্রিকেটার রিচি বেনো। প্রাক্তন এই অজি লেগ স্পিনার ক্রিকেটারের পাশাপাশি ধারাভাষ্যকার হিসেবেও পেয়েছিলেন তুমুল জনপ্রিয়তা। ‘ভয়েস অব ক্রিকেট’ বা ‘ক্রিকেটের কণ্ঠস্বর’ হিসেবে পরিচিত রিচি বেনোর মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৬৩টি টেস্ট খেলেন বেনো, এর মধ্যে ২৮টি ম্যাচে দলকে নেতৃত্ব দেন তিনি।

দীর্ঘদিন ধরে ত্বকের ক্যানসারের চিকিৎসা নিচ্ছিলেন রিচি বেনো। ২০১৩ সালে সিডনিতে একটি গাড়ি দুর্ঘটনার পর তিনি বেশি অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৬৩টি টেস্ট খেলেন বেনো, এর মধ্যে ২৮টি ম্যাচে দলকে নেতৃত্ব দেন সাবেক এই লেগস্পিনার। অধিনায়ক হিসেবে কোনো টেস্ট সিরিজ হারেননি বেনো। তার নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়া ৫টি সিরিজ জেতে আর ২টি ড্র করে। টেস্ট ক্যারিয়ারে তিনটি শতকসহ ২ হাজার ২০১ রান করেন বেনো। সঙ্গে ২৭.০৩ গড়ে ২৪৮টি উইকেট নেন তিনি। প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টে দুইশ’ উইকেট নেয়ার ও দুই হাজার রান করার কৃতিত্ব তারই।

অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক হিসেবে কোনো টেস্ট সিরিজ হারেননি বেনো। তার নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়া পাঁচটি সিরিজ জেতে আর দুটি ড্র করে। টেস্ট কেরিয়ারে তিনটি সেঞ্চুরিসহ ২ হাজার ২০১ রান করেন বেনো। সঙ্গে ২৭.০৩ গড়ে ২৪৮টি উইকেট নেন তিনি। প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টে দুশো উইকেট নেওয়া ও ২ হাজার রান করার কৃতিত্ব গড়েন।

১৯৬৪ সালে মাঠের ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার পর সাংবাদিকতা ও ব্রডকাস্টিংয়ের সঙ্গে যুক্ত হন বেনো। ১৯৫৬ সালে ইংল্যান্ডে অ্যাশেজ সিরিজের পর তিনি বিসিবির কোর্স সম্পন্ন করেন। এই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তিনি চার দশক ধরে জড়িত ছিলেন।

১৯৬০ সালে বিসিবি রেডিও এর হয়ে প্রথম ধারাভাষ্য দেন বেনো। ১৯৬৩ সালে টেলিভিশনে ধারাভাষ্য দেওয়া শুরু করেন সাবেক এই অসি অধিনায়ক। ১৯৭৭ সাল থেকে তিনি ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার চ্যানেল নাইনের প্রধান ভাষ্যকার। ২০১৩ সাল পর্যন্ত এই প্রতিষ্ঠানের হয়ে কাজ করেন তিনি।

গত নভেম্বরে বেনো জানান, ত্বকের ক্যান্সারের জন্য চিকিৎসা নিয়েছিলেন তিনি। ৮৩ বছর বয়সে সিডনিতে একটি ভয়াবহ গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে পড়েছিলেন তিনি।

বর্ণময় ক্রিকেট কেরিয়ার শেষে বেনো আরও বেশি পরিচিতি পান লেখক, কলামিস্ট ও ধারাভাষ্যকার হিসেবে। তার মৃত্যুতে বিশ্ব ক্রিকেটে একটি যুগের অবসান হলো ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *