কামারুজ্জামানের সঙ্গে পরিবারের সাক্ষাৎ

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের পরিবারের সদস্যরা তার সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে পৌঁছেছেন।

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের পরিবারের সদস্যরা তার সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে পৌঁছেছেন।একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াত নেতা মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের পরিবারের সদস্যরা তার সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে পৌঁছেছেন।

সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের মূল ফটকে পৌঁছান তারা।

একটি মাইক্রোবাসে করে কারাগারে পৌঁছান পরিবারের সাত সদস্যসহ মোট ১৪ জন। পরিবারের সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন- কামারুজ্জামানের স্ত্রী নুরুন্নাহার, দুই ছেলে হাসান ইকবাল ওয়ামি ও হাসান ইমাম ওয়াফি, মেয়ে আতিয়া নূর ও ভাগ্নি রোকসানা জেবিন।

সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে পরিবারের সদস্যরা কারাগারের ভেতরে ঢোকেন। কারাবিধি অনুযায়ী তারা কামারুজ্জামানের সঙ্গে ৩০ মিনিট সাক্ষাৎ করতে পারবেন।

রায় পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদন খারিজ হয়ে যাওয়ার পর মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের সঙ্গে বিকেল ৫টার মধ্যে দেখা করতে তার স্বজনদের চিঠি দেয় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার কর্তৃপক্ষ।

আইন অনুসারে ফাঁসির রায় কার্যকর করার আগে স্বজনদের শেষ সাক্ষাতের সুযোগ দেয়া হয়।

এদিকে কারা সূত্রে জানা গেছে, কামারুজ্জামানের ফাঁসি কার্যকরে কর্তৃপক্ষ সব প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে। আজ রাতেই তার ফাঁসি কার্যকর হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *