তামিমকে ধাক্কা দেওয়ায় ডি ককের শাস্তি

বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবালের সঙ্গে অখেলোয়াড়সুলভ আচরণ করেছিলেন সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি কক।

বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবালের সঙ্গে অখেলোয়াড়সুলভ আচরণ করেছিলেন সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি কক। চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিনে (বুধবার) বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবালের সঙ্গে অখেলোয়াড়সুলভ আচরণ করেছিলেন সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি কক।

দু’জনের বাগবিতণ্ডার এক পর্যায়ে তামিমকে ধাক্কাও দিয়েছিলেন তিনি। এর শাস্তি ভোগ করতে হয়েছে ডি কককে। শাস্তি হিসেবে তার ম্যাচ ফি’র ৭৫ শতাংশ জরিমানা করেছেন ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রড।

বুধবার লাঞ্চ বিরতিতে যাওয়ার ঠিক আগের ওভারটিতে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন তামিম ও ডি কক। শুরুটা অবশ্য ডি ককই করেছিলেন। তামিমের উদ্দেশে কিছু একটা মন্তব্য করেছিলেন তিনি। যা তামিম মেনে নিতে পারেননি, প্রতিবাদ করেছিলেন। এরপরই দুজনের মধ্যে শুরু হয় বাগবিতণ্ডা। এক পর্যায়ে স্ট্যাম্প পার হয়ে তামিমের দিকে তেড়ে আসেন দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটরক্ষক। তামিমের কাঁধে ও পাঁজরে ধাক্কাও দিয়েছেন তিনি। পরবর্তীতে দক্ষিণ আফ্রিকার অন্য ক্রিকেটারদের হস্তক্ষেপে বিষয়টি তখনকার মতো মিটে গিয়েছিল।

তবে লাঞ্চের জন্য ড্রেসিংরুমে ফেরার পথেও তামিমকে ফের ধাক্কা মেরেছিলেন ডি কক। তামিম বিষয়টি দুই অনফিল্ড আম্পায়ারকে অভিহত করলে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে তারা ডি ককের বিরুদ্ধে ম্যাচ রেফারির কাছে অভিযোগ করেন। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই ক্রিস ব্রডের তদন্তে ডি কক দোষী প্রমাণিত হয়েছেন। আইসিসির খেলোয়াড় ও ম্যাচ অফিসিয়ালদের আচরণ-বিধির ২.২.৭ ধারা লঙ্ঘনের দায়ে অভিযুক্ত হয়েছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *