১১৮ বছর ধরে গ্রেফতার যে বটগাছ!

১১৮ বছর ধরে গ্রেফতার যে বটগাছ!

১১৮ বছর ধরে গ্রেফতার বটগাছ! পাকিস্তানের পেশোয়ারে শেকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে বটগাছটিকে।

১৮৯৮ সালে লান্ডি কোটাল সেনা ক্যান্টনমেন্টে এই গাছটিকে গ্রেফতার করা হয়। কোনও বিচার ছাড়াই তখন থেকে বন্দি রয়েছে সে। ওই ক্যান্টনমেন্টে এক ব্রিটিশ সেনা অফিসার নাকি নেশার ঘোরে হাঁটার সময় দেখতে পান, বটগাছটি তাঁর দিকে এগিয়ে আসছে। ব্যস, সান্ত্রীকে দেখে হুকুম দেন, অ্যারেস্ট কর লো উসে। পেয়াদারাও ছুট্টে এসে আষ্টেপৃষ্টে শেকল পরিয়ে দেয়।

তখন থেকেই শেকলে বাঁধা রয়েছে বেচারা বটগাছ। দেশ স্বাধীন হল, দু’ভাগ হল, ‘৭১-এ আবার পাকিস্তান ভাগ হল, সেনা শাসন এল, গেল- তার ভাগ্যের কোনও পরিবর্তন হল না। এতদিন পর এখনও ওই বটগাছে বোর্ড ঝুলছে, তাতে লেখা ‘আই অ্যাম আন্ডার অ্যারেস্ট’।

পাকিস্তানের শাসকরা বোধহয় এখনও মনে করেন, বাঁধন খুলে দিলে চম্পট দিতে পারে সে। তাই বেঁধেছেঁদে রাখাই সুবিধাজনক।

কেউ কেউ অবশ্য দাবি করেন, পাক- আফগান সীমান্তের লান্ডি কোটালের উপজাতি সম্প্রদায়কে ঘুরিয়ে সমঝে দিতেই বটগাছকে গ্রেফতার করার অভিনব নির্দেশ দেয় ব্রিটিশরাজ, যাতে উপজাতিরা বুঝতে পারে, দরকারে এমন শাস্তি তাদেরও দেওয়া হবে। তা যদি হয়েও থাকে, তাহলেও এখনও গাছটিকে কোন উদ্দেশ্যসাধনে বেঁধে রাখা হয়েছে, তার কোনও উত্তর নেই।

১ thought on “১১৮ বছর ধরে গ্রেফতার যে বটগাছ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *