চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে আ.লীগের প্রার্থী আ জ ম নাছির

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়রপ্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সমর্থন পেয়েছেন আ জ ম নাছির উদ্দিন।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়রপ্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সমর্থন পেয়েছেন আ জ ম নাছির উদ্দিন। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়রপ্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সমর্থন পেয়েছেন আ জ ম নাছির উদ্দিন।

তিনি দলের মহানগর সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সহ-সভাপতি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায়  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাভেদ।

জানা যায়, এ নিয়ে আজ গণভবনে বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা এ সিদ্ধান্ত দিয়েছেন বলে জানা গেছে। গণভবনে অনুষ্ঠিত আজকের বৈঠকে সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী, নগর আওয়ামী লীগ নেতা ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ)-এর চেয়ারম্যান আবদুস সালাম ও আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল ইসলাম বিএসসিকে সকল মতভেদ ভুলে আ জ ম নাসিরের পক্ষে কাজ করতে বলেছেন শেখ হাসিনা। এসময় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ও চট্টগ্রাম মহানগরের সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরী নিজেই নিজেকে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়রপ্রার্থী ঘোষণা করেছিলেন। এছাড়া চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের সহসভপতি নুরুল ইসলাম বিএসসি ও সিডিএর চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম মেয়র পদপ্রার্থী হওয়ার জন্য আগেই প্রচারণা শুরু করেছিলেন।

চট্টগ্রামের তিনবারের সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী, আ জ ম নাসির, চট্টগ্রাম উত্তরের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এম এ সালাম, দক্ষিণের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদ, চট্টগ্রামের সাংসদ আফসারুল আমীন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আমিনুল ইসলাম আমিন, নগর কমিটির সহ-সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, সাবেক সাংসদ নুরুল ইসলাম বিএসসি, নগর কমিটির কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালামও বৈঠকে অংশ নেন, যারা সবাই চট্টগ্রামের নেতা।

কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে তোফায়েল আহমদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম ও আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক অসীম কুমার উকিলও বৈঠকে ছিলেন।

সভায় উপস্থিত দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেন, ‘প্রথমে নেত্রী সবার মতামত জানতে চান। সবার বক্তব্য শোনার পর নেত্রী আ জ ম নাছিরের কথা বলেন এবং সবাই তা সমর্থন করেছেন।’

নেত্রী সবাইকে মিলিয়ে দিয়েছেন মন্তব্য করে মফিজ বলেন, ‘উপস্থিত নেতারা বলেছেন, নেত্রী যাকে সমর্থন দেবেন তার পক্ষে সবাই একযোগে কাজ করবেন।’

মহিউদ্দিন চৌধুরী, আ জ ম নাছির ছাড়াও আবদুচ ছালাম ও নুরুল ইসলাম বিএসসি এবার প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছিলেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতেও এক সভায় মেয়র প্রার্থী নিয়ে আলোচনা হয়। এরপরই চট্টগ্রামের রাজনৈতিক অঙ্গনে আ জ ম নাছিরকে নিয়ে আলোচনা জোর পায়।

মহিউদ্দিন চৌধুরীর ছেলে চৌধুরী  মহিবুল হাসান নওফেল বলেন, ‘আমার বাবা সভার শুরুতেই আ জ ম নাছিরের পক্ষে তার প্রার্থীতা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। শনিবার চট্টগ্রামে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলবেন।’

২০১০ সালের সিটি নির্বাচনে নিজের রাজনৈতিক শিষ্য মনজুর আলমের কাছে ৯৫ হাজার ভোটে হেরেছিলেন তিনবারের মেয়র মহিউদ্দিন। মনজুর বিএনপির সমর্থন নিয়ে ওই নির্বাচনে বিজয়ী হন।

আর এবার মেয়র পদে দলের সবুজ সংকেত পাওয়া আ জ ম নাছির ১৯৭৮ ও ১৯৮১ সালে দুই দফায় চট্টগ্রাম নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

১৯৮১ ও ১৯৮৩ সালে দুইবার ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করা নাছির ১৯৮৫ সালে চট্টগ্রাম ব্রাদার্স ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাকালীন সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

বর্তমানে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক ও ক্রিকেট কমিটি অফ ঢাকা মেট্রোপলিটনের চেয়ারম্যানের দায়িত্বে রয়েছেন সিজেকেএসের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাছির।

ক্রীড়াঙ্গনের নানা দায়িত্বশীল পদে থাকা নাছির এর আগে কখনো কোনো নির্বাচনে অংশ নেননি। নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সদস্য পদ থেকে ২০১৩ সালের ১৪ নভেম্বর সরাসরি তিনি সাধারণ সম্পাদকের পদ পান।

এর সতের মাসের মাথায় সেই নাছিরই আগামী ২৮ এপ্রিল চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে ক্ষমতাসীন দলের প্রতিনিত্বি করতে যাচ্ছেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *