‘২০১৭ সালে বাংলাদেশের ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন’

২০১৯ সাল নাগাদ সবচেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জনকারী দেশের তালিকায় ২য় স্থানে থাকবে বাংলাদেশ। আর ২০১৭ সাল থেকেই বাংলাদেশ ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে থাকবে ।

২০১৯ সাল নাগাদ সবচেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জনকারী দেশের তালিকায় ২য় স্থানে থাকবে বাংলাদেশ। আর ২০১৭ সাল থেকেই বাংলাদেশ ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে থাকবে ।২০১৯ সাল নাগাদ সবচেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জনকারী দেশের তালিকায় ২য় স্থানে থাকবে বাংলাদেশ। আর ২০১৭ সাল থেকেই বাংলাদেশ ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে থাকবে । আইএমএফ এর ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক আউটলুকের তথ্য ব্যবহার করে গতকাল সিএনএন মানি ‘ওয়ার্ল্ড’স লার্জেস্ট ইকোনমিস’ শিরোনামে এক প্রতিবেদনে এমন পূর্বাভাস দিয়েছে।

পূর্বাভাসে সিএনএন মানি বলছে, ২০১৯ সাল নাগাদ সবচেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে যেসব দেশের মধ্যে ২য় অবস্থানে থাকবে বাংলাদেশ। ২০১৯ সাল নাগাদ ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে বাংলাদেশ। এ সময় ৯ দশমিক ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করে শীর্ষে থাকবে ইরাক। বাংলাদেশের পরে ৬ দশমিক ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে ভারত। ভারতের পরের ২টি স্থান থাকবে অ্যাঙ্গোলা ও নাইজেরিয়ার।

১ হাজার কোটি মার্কিন ডলারের বেশি অর্থনীতি দাঁড়াবে যেসব দেশগুলোতে, তা নিয়ে সম্প্রতি একটি টাইমলাইন প্রকাশ করেছে সিএনএন মানি।

টাইমলাইনটিকে অর্থনীতির আকার ও প্রবৃদ্ধি এই ২ ভাগে ভাগ করে দেখানো হয়েছে। ২০০২ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত দেখানো টাইমলাইনে ২০১২ সাল থেকে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধির হার দেখানো হয়েছে। ২০১২ সালে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি দেখানো হয়েছে ৬ দশমিক ১ শতাংশ। ২০১৩ সালে তা কমে ৫ দশমিক ৮ শতাংশ হয়। ২০১৪ সালে প্রবৃদ্ধি আবার বেড়ে ৬ শতাংশে পৌঁছায়। টাইমলাইনে চলতি বছরের সম্ভাব্য প্রবৃদ্ধি দেখানো হয়েছে সাড়ে ৬ শতাংশ। ২০১৬ সালে ৬ দশমিক ৮ শতাংশ। আর ২০১৭ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধির ধারা অব্যাহত রেখে বিশ্বের সব দেশের মধ্যে প্রবৃদ্ধি অর্জনের দিক থেকে ২য় অবস্থানে চলে যাবে।

টাইমলাইনে দেখানো হয়েছে, ২০১৬ সালে লিবিয়ার প্রবৃদ্ধি হবে ২৫ দশমিক ৫ শতাংশ।

২০১৯ সালে বিশ্বে সবচেয়ে বড় অর্থনীতির ৫ দেশ হবে যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্র , চীন, জাপান, জার্মানি ও যুক্তরাজ্য। ভারত হবে ৭ম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *