মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটের পদ্মা নদীতে দুই শতাধিক যাত্রী নিয়ে লঞ্চডুবির ঘটনায় প্রশাসনের উদ্ধার তৎপরতা সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।
সারাদেশ

উদ্ধারকাজ সমাপ্ত, ৭০ মৃতদেহ উদ্ধার

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটের পদ্মা নদীতে দুই শতাধিক যাত্রী নিয়ে লঞ্চডুবির ঘটনায় প্রশাসনের উদ্ধার তৎপরতা সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটের পদ্মা নদীতে দুই শতাধিক যাত্রী নিয়ে লঞ্চডুবির ঘটনায় প্রশাসনের উদ্ধার তৎপরতা সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, রবিবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে সারবাহী কার্গোর ধাক্কায় এমভি মোস্তফা নামের লঞ্চডুবির ঘটনায় নারী ও শিশুসহ অন্তত ৭০ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন ১১ জন।

এদের দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত মধ্যে ৬৯টি লাশের পরিচয় সনাক্ত করে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। একজন নারীর লাশ বেওয়ারিশ রয়েছে।

মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক রাশিদা ফেরদৌস আনুষ্ঠানিকভাবে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উদ্ধার কাজ সমাপ্ত করেন।

তিনি বলেন, ‘পদ্মায় উদ্ধার কাজ সমাপ্ত করা হলো। তবে তীরে আঞ্জুমান মুফিজুলের দুটি লাশবাহী গাড়ি থাকবে। যদি ডুবুরিরা কোনো লাশের সন্ধান পায়। ওই গাড়িতে লাশ বহন করা হবে। এ পর্যন্ত উদ্ধার করা হয়েছে ৭০ জনের মৃতদেহ। এদের মধ্যে ৬৮ জনের পরিচয় সনাক্ত শেষে ৬৫ জনের মৃতদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ’

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মানিকগঞ্জ ইউনিটের সহকারী পরিচালক খান মুহাম্মাদ তাজুল ইসলাম টিটু  বলেন, ‘লঞ্চডুবির ঘটনায় ৭০টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ৬৯টি লাশের পরিচয় নিশ্চিতের পর বেলা আড়াইটা পর্যন্ত ৬৯টি লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘একজন মহিলার লাশ বেওয়ারিশ রয়েছে। নিখোঁজ তালিকার ২২ জনের মধ্যে ১১ জনের মরদেহ সনাক্ত করা হয়েছে।’

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, রবিবার দুপুরে পাটুরিয়া থেকে দৌলতদিয়া যাওয়ার পথে পদ্মা নদীতে এমভি মোস্তফা নামের লঞ্চটি বাঘাবাড়িগামী এমভি নারগিস-১ নামে সারবাহী একটি কার্গো জাহাজের সঙ্গে ধাক্কা লেগে মাঝ নদীতে ডুবে যায়। সে সময় সাঁতরে ও নদীতে থাকা অন্য লঞ্চে উঠে ৩০-৩৫ জন প্রাণে বেঁচে যান।

তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা, নৌ-পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা উদ্ধার কাজ শুরু করে। পরে ঢাকা ফায়ার সার্ভিসের রেসকিউ ও ডুবুরি দলের আট সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল বেলা পৌনে তিনটার দিকে ঘটনাস্থলে আসে।

এছাড়া, বিকেল পাঁচটার দিকে নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাহজাহান খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং উদ্ধার তৎপরতার খোঁজ-খবর নেন। নিহতদের প্রত্যেককে ১ লাখ ৫ হাজার টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

নৌমন্ত্রী জানান, ঘটনা তদন্তে নৌ-মন্ত্রণালয়ের সচিব নুরুর রহমানকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে।

লঞ্চডুবির ঘটনায় সারবাহী কার্গো এমভি নারগিস-১ আটক করা হয়। পরে কার্গোটির তিন লস্করকেও আটক করা হয়েছে।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *