why-vision-2021-implementation-is-impossible

২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হওয়া অসম্ভব

২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হওয়া অসম্ভব যেসব কারনে সেগুলো এই লেখায় তুলে ধরার চেষ্টা করবো। বিবিএসের সর্বশেষ জরিপ অনুযায়ী বাংলাদেশের মানুষের মাথাপিছু আয় ১,২৮,১৬০ টাকা অর্থাৎ মাসে আয় ১০,৬৮০ টাকা। ডলারের অংকে হিসাব করলে ১৬০২ ডলার। নিচে ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হওয়া অসম্ভব যে ১০টি কারনে সেগুলো তুলে ধরা হলঃ

১. ২০২১ সালে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে প্রবেশ করতে বর্তমান ১৬০২ ডলারকে নিতে হবে ৪,১২৫ ডলারে যা ৪ বছরে করা অসম্ভব।

২. নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশে যেতে হলে যেসব পূর্ব শর্ত পালন করতে হবে সেগুলো করা হয়নি করার লক্ষণও নেই।

৩. শর্তের মধ্যে রয়েছে, যথপোযুক্ত সামাজিক অবকাঠামো নির্মাণ। এই অবকাঠামোর মধ্যে রয়েছে শিক্ষা এবং স্বাস্থ্য খাতে সরকারি ব্যয় উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বৃদ্ধি।

৪. সিপিডি মনে করে যে, ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হওয়া বাংলাদেশের পক্ষে অসম্ভব।

৫. স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বের হতে তিনটি স্তর পূরণ হবে- মাথাপিছু আয়, মানব সূচক উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক ঝুঁকি। বাংলাদেশ শুধু অর্থনৈতিক ঝুঁকির স্তরকে অতিক্রম করেছে।

৬. শ্রমের উৎপাদনশীলতায় বাংলাদেশ সবার থেকে পিছিয়ে।

৭. দেশের এক-তৃতীয়াংশ সম্পদের মালিকানা মাত্র ১০ শতাংশ প্রভাবশালীর হাতে কুক্ষিগত রয়েছে। ধনী ১০ শতাংশ মানুষের দখলে দেশের মোট সম্পদের ৩৬ শতাংশ। বিপরীতে সবচেয়ে গরিব ১০ ভাগের হাতে সম্পত্তি রয়েছে মাত্র ২ শতাংশ।

৮. কনজামপশন বান্ডেলের ওপর হিসাব করে ১৯৭২ সালে দারিদ্র্যসীমা মাপা হতো, এখনো সেটাই করা হচ্ছে। তবে সেই কনজামপশন বান্ডেলের ওপর যে আয় হিসাব করা হয়েছে, এখন তা মোটেও প্রযোজ্য নয়।

৯. বর্তমানে এত বেশি উৎপাদনশীলতা বেড়ে গেছে যে, তাতে সঠিকভাবে দারিদ্র্যসীমা নিরূপণ করা সম্ভব নয়।

১০. যদি বিশ্ব ব্যাংকের আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী ৩ ডলার করে আয় মাপা হয়, তাহলে দেশের ৮০ শতাংশ মানুষ এখনো দারিদ্র্যসীমার নিচে রয়েছে।

অর্থাৎ ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশের মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হওয়া কার্যত অসম্ভব।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *