দেশব্যাপী ২০ দলীয় জোটের সোমবার থেকে চলা ৭২ ঘণ্টা হরতালের সময় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।
জাতীয়

হরতাল বাড়ল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত

দেশব্যাপী ২০ দলীয় জোটের সোমবার থেকে চলা ৭২ ঘণ্টা হরতালের সময় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। দেশব্যাপী ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীদের নির্বিচারে খুন, গুম, হামলা-মামলা ও গণগ্রেফতারের প্রতিবাদে সোমবার থেকে চলা ৭২ ঘণ্টা হরতালের সময় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মঙ্গলবার দুপুরে এ তথ্য জানা যায়।

সালাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘গণদাবি মানার কোনো ঘোষণা না দিয়ে সরকারের পেটোয়া যৌথবাহিনী নরহত্যা, ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীদের খুন, গুম, হামলা-মামলা ও গণগ্রেফতার, সাংবাদিক নির্যাতন ও সংবাদমাধ্যম নিয়ন্ত্রণ, বিচার ব্যবস্থার ওপর সরকারি নগ্ন হস্তক্ষেপ, খালেদা জিয়া এবং ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবসহ নেতাদের ও বিশিষ্ট নাগরিকদের বিরুদ্ধে অব্যাহতভাবে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে এ হরতাল কর্মসূচি চলবে।’

বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মী ও গণতন্ত্রকামী সকল দেশপ্রেমিক জনগণকে শান্তিপূর্ণভাবে এই কর্মসূচি পালনের জন্য দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।

সালাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে দেশের সকল গণতন্ত্রকামী দেশপ্রেমিক জনতা ঐক্যবদ্ধ। সংবিধান স্বীকৃত সকল মৌলিক অধিকার ও মানবাধিকার, ভোটের অধিকার, জনপ্রতিনিধিত্বশীল সরকার প্রতিষ্ঠা ও ভোটারবিহীন জবরদখলকারী অবৈধ সরকারের পতনের লক্ষ্যে চলমান গণআন্দোলন বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে উপনীত প্রায়।’

তিনি বলেন, ‘প্রতিদিন আন্দোলনকারীদের রক্তে রঞ্জিত হচ্ছে কালো রাজপথ। গতকালও সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার জামায়াত নেতা সাইদুল ইসলামকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গুলি করে হত্যা করেছে সরকারের পেটোয়া পুলিশ বাহিনী। বাংলাদেশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের যুগ্ম-সম্পাদক আইনের ছাত্র আরিফুল ইসলাম মুকুলকে ডিবি পুলিশ হত্যা করে রূপনগর থানা বেড়িবাঁধ এলাকায় লাশ ফেলে রেখে যায়।’

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ‘দেশপ্রেমিক গণতন্ত্রকামী আন্দোলনকারীদের এই আত্মত্যাগ কখনও বৃথা যাবে না। সমগ্র দেশকে মৃত্যুপুরীতে পরিণত করলেও এই অবৈধ সরকারের শেষরক্ষা হবে না।’

তিনি অভিযোগ করেন, গণতন্ত্র মুক্তি আন্দোলনকে কলুষিত করতে ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে অবৈধ সরকার। প্রতিদিন সরকারি এজেন্টদের মাধ্যমে পেট্রোলবোমা হামলা চালিয়ে তার দায়-দায়িত্ব বিরোধী দলের ওপর চাপানোর অপচেষ্টা চালিয়েই যাচ্ছে এই দানবীয় সরকার। কিছু সরকারি মদদপুষ্ট ও নিয়ন্ত্রিত ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া এই অপপ্রচারে রীতিমতো প্রতিযোগিতায় নেমেছে। আমরা বারংবার দাবি করছি, এই সব জঘন্য কর্মকাণ্ডের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের গ্রেফতার ও সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে বিচার করা হোক।

সালাহ উদ্দিন আহমেদ আরও বলেন, ‘বিএনপি ও ২০ দলীয় জোট গণতান্ত্রিক অহিংস ও শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে বিশ্বাস করে। এ পর্যন্ত অত্যন্ত কষ্ট স্বীকার করে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন-সংগ্রাম, হরতাল-অবরোধ অব্যাহত রাখার জন্য সমগ্র দেশবাসী, বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মী ও গণতান্ত্রিক মুক্তি আন্দোলনের সঙ্গে ঐকমত্য পোষণকারী সকল রাজনৈতিক শক্তি ও ব্যক্তিকে আমি অভিনন্দন জানাই।’

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *