হতাশা কাটানোর ৪টি উপায়

হতাশা কাটানোর ৪টি উপায়

মানুষের মুখে হতাশার কথা শুনতে শুনতে একসময় আমরা নিজেকেও ওই হতাশের দল ফেলে দেই। আর ভাবি শুধু অন্ধকারময় দিনের কথা। আর নিজেরও যদি সময় খারাপ যায়, তাহলে তো আরও বেশি হতাশ হবার মত অবস্থা হয়।

না এতটা হতাশ হওয়ার কিছু নেই। উদ্বেগ আর হতাশা থেকে বেরিয়ে আসাই জীবন। জেনে নিন হতাশা কাটানোর ৪টি উপায়।

১. হতাশার উৎস
হতাশার উৎস ভেবে বার করুন। কাজটা খুব কঠিন নয়। আর সমস্যা চিহ্নিত করতে পারলেই সমাধানও আসবে। কিন্তু সমস্যা যদি নিজের মধ্যেই হয় তবে তা খুঁজে বার কঠিন হয়ে পড়ে। আরে বাবা, সমস্যা থাকলে সমাধানও আছে। অফিসের পরিবেশ পছন্দ হচ্ছে না কিংবা গার্লফ্রেন্ড কিংবা বয়ফ্রেন্ড ছেড়ে গেছে। তা সাময়িকভাবে নেতিয়ে দিতে পারে জীবন। কিন্তু মনে রাখবেন আরও অনেক কাজ রয়েছে। অবসর সময়ে নতুন চাকরি খুঁজুন। নতুন মানুষের সঙ্গে মিশুন। ব্রেক আপের যন্ত্রণা কাটিয়ে উঠতে পারবেন।

২. অভ্যাসের পরিবর্তন
দৈনন্দিন অভ্যাসের পরিবর্তন আনুন। ঝুঁকি এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। দেখবেন উদ্বেগ আর হতাশা অনেকটাই কেটে গিয়েছে। অনেকেই শেষ সময়ে কাজ করতে ভালবাসেন। সেটা তাঁদের অভ্যাসের মধ্যে পড়ে। তাই দেখে আপনিও সেভাবে কাজ করার চেষ্টা করবেন না। কারণ, প্রত্যেকের ভাবনা আলাদা। কাজের ধরন আলাদা।

৩. অতীতের ভাল সময়ের কথা ভাবুন
ব্যর্থতাই জীবনের শেষ কথা নয়। হাজারো কাজ, ব্যর্থতা আসবেই। তা নিয়ে বসে থাকবেন না। এ সময়ে কোনো সফল মানুষের পরামর্শ নিন। সম্ভব হলে সফল মানুষের জীবনী পড়ুন। তাছাড়া অতীতের ভাল সময়ের কথা ভাবুন।

৪. নিজেকে গুরুত্বপূর্ণ করে তুলুন
নিজেকে অছ্যুৎ ভাববেন না। কাজের জায়গায় নিজেকে গুরুত্বপূর্ণ করে তুলুন। অপরকে কাজে সাহায্য করুন। দেখবেন আত্মবিশ্বাস বাড়ছে। হতাশা কাটছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *