স্বপ্ন সম্পর্কে ১৫টি অজানা তথ্য

স্বপ্ন সম্পর্কে ১৫টি অজানা তথ্য

45
0
SHARE

স্বপ্ন সম্পর্কে ১৫টি অজানা তথ্যঘুমের মধ্যে সব মানুষই স্বপ্ন দেখে। স্বপ্ন কখনও মানুষ মনে রাখে কখনও আবার ঘুম থেকে উঠার সাথে সাথে ভুলে যায়।

জেনে নিন স্বপ্ন সম্পর্কে ১০টি অজানা তথ্য।

১। ঘুম থেকে উঠার ৫ মিনিটের মধ্যে মানুষ স্বপ্নের অর্ধেক ভুলে যায় আর ১০ মিনিটের মধ্যে ৯০ শতাংশই ভুলে যায়।

২। যেসব মানুষ জন্মের পরে অন্ধ হয় তারা যে ইমেজ দেখেছে, সেসবের স্বপ্ন দেখে আর যারা অন্ধ হয়ে জন্ম নেয় তারা কোন ইমেজ দেখতে পারে না। তারা শুধু আশেপাশের শব্দ, গন্ধ, স্পর্শ আর অনুভূতির স্বপ্ন দেখে।

৪। স্বপ্নে আমরা যেসব মুখ দেখি তা সবসময় আমাদের চেনা মানুষদের মুখ থাকে।

৫। ১২ শতাংশ মানুষ শুধু সাদাকালো স্বপ্ন দেখে আর বাকি ৮৮ শতাংশ মানুষের স্বপ্নে রং দেখে । গবেষণায় দেখা গেছে ২৫ বছরের নিচে যারা তাদের স্বপ্নের ৪ শতাংশ সাদাকালো হয়।

৬। আমাদের স্বপ্ন অনেক সময় সত্যি হয় বা সত্যি হওয়ার কাছাকাছি হয় । এর কারণ আমাদের অবচেতন মন স্বপ্নের সাথে সবসময় ওই ঘটনার তুলনা করতে চায় বা তুলনা করে।

৭। স্বপ্নে সবচেয়ে বেশি যে অনুভূতি লক্ষ্য করা যায় সেটা হচ্ছে অনিশ্চয়তা বোধ বা দুশ্চিন্তা। ভালো অনুভূতির ছেয়ে খারাপ অনুভূতি বেশি থাকে স্বপ্নের মধ্যে।

৮। প্রতি রাতে মানুষ প্রায় কমপক্ষে ১ থেকে ২ ঘণ্টা স্বপ্ন দেখে কাটায়।

৯। পশু পাখিও মানুষের মতো স্বপ্ন দেখে । ধারণা করা হয় কুকুর বা যেকোনো প্রাণী যখন ঘুমের মাঝে স্বপ্ন দেখে আর পা নাড়তে থাকে তখন সে কিছু তাড়া করার স্বপ্ন দেখে।

১০। অনেক সময় আশে পাশের ঘটে যাওয়া ঘটনা স্বপ্নের অংশ হয়ে যায় । যেমনঃ কোন কোন সময় আমরা বাস্তবে শব্দ শুনি কিন্তু তা স্বপ্ন মনে হয়।

১১। পুরুষ এবং মহিলারা আলাদাভাবে স্বপ্ন দেখেন। ছেলেরা অধিকাংশ সময় অর্থাৎ ৭০ শতাংশ স্বপ্ন দেখে অন্য ছেলেদের নিয়ে। মেয়েরা ছেলে আর মেয়েদের নিয়ে সমান পরিমাণ স্বপ্ন দেখে।

১২। বেশির ভাগ মানুষ কোন কিছু কি রকম ঘটবে তার স্বপ্ন দেখে এবং তা ৭০ ভাগ সময় সত্যি হয়ে যায়।

১৩। নাক ডাকার সময় কেউ স্বপ্ন দেখে না। গবেষণায় দেখা গেছে নাক ডাকার সময় নাকি স্বপ্ন দেখা যায় না।

১৪। ঘড়ি বা মুঠোফোনের অ্যালার্মে ধরফড় করে আকস্মিকভাবে জেগে উঠলে তার ঠিক আগের মুহূর্তেই ঘুমের ঘোরে কী দেখছিলেন, কী ভাবছিলেন, তা ভুলে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

১৫। ঘুমের মধ্যেও স্বপ্নে উত্তেজিত হয়ে পড়লে আপনার রক্তচাপ বেড়ে যেতে পারে বা অন্য কোনো আবেগের সঙ্গে খাপ খাইয়ে শরীরে অন্য কোনো উত্তেজনা তৈরি হতে পারে।

Comments

comments