বিএনপির সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমান ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে যাওয়ার ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবেই দলকে পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানা গেছে।
জাতীয়

তারেক রহমানের নির্দেশনায় সিটি নির্বাচনে বিএনপি

বিএনপির সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমান ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে যাওয়ার ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবেই দলকে পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানা গেছে।লন্ডনের এক আলোচনা সভায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমান ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে যাওয়ার ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবেই দলকে পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবেই সিটি নির্বাচনে যাচ্ছে দলটি।একই সঙ্গে দলীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন নির্বাচনে কাজ করার জন্য।

২৬ মার্চ যুক্তরাজ্য বিএনপির উদ্যোগে লন্ডনে আয়োজিত স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভায় দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান এ নির্দেশনা দেন। স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের ৪৪তম বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভাটির আয়োজন করা হয়।
তারেক রহমান বলেন, ‘চলমান গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনের অংশ ও কৌশল হিসেবেই আসন্ন সিটি নির্বাচনে লড়াইয়ে থাকবে বিএনপি। সারাদেশে বিএনপির কোটি কোটি নেতাকর্মী রয়েছে। গত কয়েক মাসে তৃণমূলের অনেক নেতাকর্মীর সঙ্গে কথা বলেছি। তাদের মতামত নিয়েছি। তারা বলেছেন- শত জুলুম-নির্যাতন-কষ্ট সহ্য করে হলেও গন্তব্যে না পৌঁছা পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত রাখতে তারা বদ্ধপরিকর। তাদের মতামত, আন্দোলনের অংশ হিসেবেই এই ভোট ডাকাত সরকার এবং দলীয় নির্বাচন কমিশনের মুখোশ উন্মোচন করতেই নির্বাচনে যাওয়া প্রয়োজন।’

তারেক বলেন, ‘তৃণমূলকর্মীদের সঙ্গে কথা বলার সময় অনেক কর্মী বলেছেন- আওয়ামী লীগ ছলে-বলে-কৌশলে যে কোনো উপায়ে ক্ষমতায় থাকতে চায়। তাদের সেই অপকৌশল সফল হতে দেয়া যাবে না। কৌশলী হয়েই আমাদেরকে এগুতে হবে। আন্দোলনকে পৌঁছাতে হবে নির্দিষ্ট গন্তব্যে।’

তিনি বলেন, ‘দূরে থাকায় ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও অসংখ্য নেতাকর্মীর সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি। তবে কথা দিচ্ছি, শিগগিরই নেতাকর্মীদের সামনে হাজির হবো। তখন দেশের জনগণের সঙ্গে, দলের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীর সঙ্গে দেখা হবে, মুখোমুখি কথা হবে ইনশাআল্লাহ।’

তিনি আরো বলেন, ‘তফসিল ঘোষিত এলাকায় আন্দোলনের অংশ হিসেবেই নির্বাচনী কাজ চলবে, সেই সাথে সারা বাংলাদেশে আন্দোলন কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।’ একইসঙ্গে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সকল অপকৌশল প্রতিহত করতে দলের নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দেন তিনি।

তারেক রহমান বলেন, ‘আমাদের দলের তৃনমূলের নেতাকর্মীরা মনে করেন- আন্দোলনের গতি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতেই সিটি নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। নির্বাচন দিয়ে তারা অপকৌশলের আশ্রয় নিয়েছে। অংশগ্রহণ করে আমরা প্রমাণ করতে চাই, তাদের অধীনে নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব নয়।’

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহিদুর রহমান, সাবেক আহ্বায়ক এম এ মালিক, ব্যারিস্টার এম এ সালাম, উপদেষ্টা মুজিবুর রহমান, যুক্তরাজ্য বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুল হামিদ চৌধুরী, সহ-সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, মঞ্জুরুস সামাদ মামুন, আকতার হোসেন, প্রথম যুগ্ম-সম্পাদক নাসিম আহমদ চৌধুরী, যুগ্ম-সম্পাদক হেলাল নাসিমুজ্জামান, ফেরদৌস আলম প্রমুখ।

[তারেক রহমানের বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশের ব্যাপারে আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকায় তাঁর পুরো বক্তব্য প্রকাশ করা হল না। শুধুমাত্র সিটি করপোরেশন নির্বাচন ও আন্দোলন নিয়ে বক্তব্য প্রকাশিত হল। ]

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *