‘সিঙ্গেল’ জীবনকে উপভোগের ১০ উপায়

‘সিঙ্গেল’ জীবনকে উপভোগের ১০ উপায়

আপনি কি সিঙ্গেল? নিশ্চয়ই নিজের জীবন নিয়ে অনেক কথা শুনতে হয় আপনাকে? অধিকাংশ মানুষই মনে করেন যারা সিঙ্গেল তারা আসলে দুঃখী। জীবনে ভালবাসা,আনন্দের অভাব। ফলে এদের প্রতি সমবেদনা দেখান,সান্ত্বনার কথা বলেন, কারণ-অকারণে অযাচিত উপদেশও দেন। সিঙ্গেলহুড আপনি স্বেচ্ছায় বেছে নিন বা পরিস্থিতির কারণে একাকীত্ব আসুক জীবনে, উপভোগ করুন।

সিঙ্গেল জীবনকে উপভোগের ১০ উপায় জেনে নিন।

১. নিজের জীবন ভালবাসুন
অন্যদের সঙ্গে তুলনা না করে নিজের জীবন ভালবাসুন। নিজের জীবনে যা ঘটছে তা উপভোগ করুন, কাছের মানুষগুলোকে চিনুন। আপনার জীবন সুন্দর করে তোলার দায়িত্ব আপনারই।

২. নিজেকে ভালবাসুন
কোনো সম্পর্কে ভালবাসা খোঁজার আগে প্রয়োজন নিজেকে ভালবাসা। নিজেকে চিনুন, নিজের প্রয়োজন বুঝুন, নিজেকে ভালবাসুন। নিজের পছন্দ, নিজের ভাললাগা গুরুত্ব দিন। নিজের সঙ্গে সময় কাটান।

৩. ভাল বন্ধু
কোনো বিশেষ ভালবাসার মানুষ জীবনে নেই বলে দুঃখ করে বসে থাকবেন না, বা কারো অপেক্ষায় থাকবেন না। বন্ধুত্ব করুন। জীবনে ভাল বন্ধু প্রয়োজন।

৪. নিজের চাহিদা সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা
অনেকেরই নিজের জীবন সম্পর্কে, চাহিদা সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা থাকে না।নিজে কী চান জীবনে তা বুঝে উঠতে পারেন না। ঠিক কী চান সে সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা তৈরি করুন।

৫. নিজে যা চাইছেন তাই করুন
অনেকেই আমাদের জীবনে কী করা উচিত, কী করা উচিত তা নিয়ে অনেক কিছু বলতে থাকেন।নিজের জীবনে যা চান তাই করুন। এতেই খুশি থাকবেন।

৬. নিজের ওপর ভরসা
কোনো কিছু করতে ভয় পাবেন না। মনের কথা শুনুন, সাহস করে কাজ করুন, নিজের ওপর ভরসা, বিশ্বাস রাখুন।

৭. নিজের ভিতরে খুশি খোঁজার চেষ্টা
যদি নিজেকে খুশি রাখতে না পারেন, নিজের মধ্যে শান্তি খুঁজে নিতে না পারেন, তাহলে পারিপার্শ্বিক কোনো কিছুই আপনাকে আনন্দে রাখতে পারবে না। তাই নিজেকে সময় দিন, নিজের অন্তরে আনন্দ খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করুন।

৮. স্বপ্ন দেখুন, লক্ষ স্থির করুন
অনেকেই অন্যদের কথা শুনে ভাবতে শুরু করেন তাদের জীবনে কিছুই নেই। স্বপ্ন দেখুন,জীবনের লক্ষ্য তৈরি করুন। এতে জীবনের প্রতি ইতিবাচক মনোভাব তৈরি হবে।

৯. জীবনের প্রতি কৃতজ্ঞতা
একাকীত্ব নিয়ে,অন্যদের জীবনে কী রয়েছে,আপনার কীসের অভাব তা নিয়ে না ভেবে,জীবনে কী কী পেয়েছেন, একা থাকার জন্য কী কী সুবিধা হয়েছে আপনার তা ভাবুন। এতে জীবনের প্রতি কৃতজ্ঞতা বাড়বে।

১০. নিজস্বতা
অন্য কে আপনাকে কী বলছে তা শুনে, বা অন্য কারো সঙ্গে নিজের জীবন তুলনা করবেন না। নিজের পছন্দমতো, যেভাবে জীবনটা কাটাতে চান, তেমন করেই জীবনটা গড়ে তুলুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *