সালাহ উদ্দিন আহমেদের খোঁজ পায়নি পুলিশ

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদকে খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদকে খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদকে খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানিয়ে অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ে একটি প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সালাহ উদ্দিনের খোঁজে পুলিশের অনুসন্ধান অব্যাহত রয়েছে।

আজ দুপুরে হাইকোর্টে এ নিয়ে শুনানির কথা রয়েছে।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. বশির উল্লাহ রবিবার সকালে জানান, ‘আমরা এসবি, সিআইডি, র‌্যাব, ডিএমপি ও পুলিশ হেড কোয়ার্টার থেকে পাঁচটি রিপোর্ট পেয়েছি। সবাই জানিয়েছে তারা সালাউদ্দিনের কোনো সন্ধান এখনও পায়নি।’

এদিকে সালাহ উদ্দিন আহমেদকে খুঁজে বের করে আদালতে হাজির করতে হাইকোর্টের দেয়া রুলের বিষয়ে শুনানি করার জন্য আজ হাইকোর্টের কার্যতালিকায় রাখা হয়েছে।

বিচারপতি কামরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও বিচারপতি গোবিন্দ্র চন্দ্র ঠাকুরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রবিবারের কার্যতালিকায় এটি এসেছে।

বিএনপিপন্থী আইনজীবী ব্যারিস্টার রাগিব রউফ চৌধুরী জানান, বেলা আড়াইটায় এ রুলের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

২৪ ঘণ্টার মধ্যে সালাহ উদ্দিন আহমেদকে আদালতে হাজির করার নির্দেশনা চেয়ে গত বৃহস্পতিবার হাইকোর্টে একটি ফৌজদারি আবেদন করেন সালাহ উদ্দিনের স্ত্রী সাবেক সংসদ সদস্য হাসিনা আহমেদ।

ওই দিনই শুনানি শেষে সালাহ উদ্দিন আহমেদকে রবিবারের মধ্যে খুঁজে বের করে আদালতে হাজির করতে কেন নির্দেশনা দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

স্বরাষ্ট্রসচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, র‌্যাবের মহাপরিচালক, পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (এসবি), পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (সিআইডি), ঢাকা জেলা প্রসাশক, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার, উত্তরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

গত বুধবার পরিবার ও বিএনপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয় যে সালাহ উদ্দিন আহমেদকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাদা পোশাকের একটি দল আটক করে নিয়ে গেছে।

মঙ্গলবার রাত ১০টায় রাজধানীর উত্তরার একটি বাসা থেকে তাকে আটক করা হয় বলে তারা জানান।

তবে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী বলছে, তারা এ বিষয়ে কিছুই জানে না।

এদিকে নিখোঁজের চারদিন পার সালাহ উদ্দিন আহমেদের কোনো সন্ধান না মেলায় শঙ্কিত  হয়ে পড়েছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। অন্যদিকে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা।

সবাই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন, বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলী ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচিত কাউন্সিলর চৌধুরী আলমের মতই কি ভাগ্য বরণ করতে যাচ্ছেন সালাহ উদ্দিন!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *