ঢাবি ছাত্রকে নির্যাতন: সাবেক ওসির কারাদণ্ড

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন ছাত্র আবদুল কাদেরকে মারধর করে গুরুতর জখম করার অভিযোগে খিলগাঁও থানার সাবেক ওসি হেলাল উদ্দিনকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন ছাত্র আবদুল কাদেরকে মারধর করে গুরুতর জখম করার অভিযোগে খিলগাঁও থানার সাবেক ওসি হেলাল উদ্দিনকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন ছাত্র আবদুল কাদেরকে মারধর করে গুরুতর জখম করার অভিযোগে করা মামলায় খিলগাঁও থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেলাল উদ্দিনকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে তাকে।

ওসি হেলালের পক্ষে সময়ের আবেদন করা হলে আদালত তা নাকচ করে তাকে পলাতক দেখিয়ে এ রায় ঘোষণা করা হয়। রায়ে বলা হয়, আসামি গ্রেফতার বা আত্মসমর্পণের দিন থেকে এ রায় কার্যকর হবে।

২০১১ সালের ১৬ জুলাই রাতে খালার বাসা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হলে ফেরার পথে খিলগাঁও থানার ওসি আব্দুল কাদেরকে বিনাকারণে ধরে নিয়ে যান। পরে তাকে থানায় নিয়ে একটি মামলায় নির্যাতনের মুখে জোরপূর্বক স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেয়ার চেষ্টা করেন। নির্যাতনের এক পর্যায়ে ধারালো চাপাতি দিয়ে হেলালের পায়ে আঘাত করে গুরুতর জখম করেন ওসি। এছাড়াও লাঠি দিয়ে তাকে মারধর করা হয়।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে এ খবর প্রচারের পর আদালত ওসি হেলালের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের আদেশ দেন। আইন মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে ও হাইকোর্টের নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে আব্দুল কাদের ২০১২ সালের ২৩ জানুয়ারি ওসি হেলাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে একটি নির্যাতনের মামলা দায়ের করেন।

আব্দুল কাদের বর্তমানে বিসিএস (শিক্ষা) ক্যাডারে সরকারি চাকরিজীবী হিসেবে কর্মরত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *