সাইকেলে হজে যাচ্ছেন তিন বাংলাদেশি

সাইকেলে হজে যাচ্ছেন তিন বাংলাদেশি

পবিত্র হজ পালন করতে বাইসাইকেল চালিয়ে সৌদি আরবের মদিনায় যাচ্ছেন যুক্তরাজ্যের আট যুবক। ছয় সপ্তাহের এই যাত্রা শুরু হবে লন্ডন শহর থেকে। সাইকেল আরোহীদের মধ্যে রয়েছেন তিন বাংলাদেশি। বাকি চারজন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ। অন্যজন যুক্তরাজ্যের বাসিন্দা।

সৌদি আরবভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল আরাবিয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী হজ পালনের পাশাপাশি সিরিয়ার মানুষের চিকিৎসার জন্য ১০ লাখ পাউন্ড সংগ্রহ করার উদ্দেশ্য ওই আট যুবকের। তাঁরা সবাই ‘হিউম্যান এইড’ নামে একটি দাতব্য সংস্থার সদস্য।

পরিকল্পনা অনুযায়ী সাইকেলযাত্রীরা লন্ডন থেকে সাইকেল চালিয়ে যাবেন যুক্তরাজ্যের নিউ হ্যাভেন শহরে। সেখান থেকে ফেরিযোগে রওনা দেওয়া হবে ফ্রান্সের দিকে। এরপর আবার সাইকেলযোগে যাত্রা শুরু হবে। ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস থেকে সুইজারল্যান্ড, জার্মানি, অস্ট্রিয়া, লিচটেনস্টাইন হয়ে সাইকেল চালিয়ে তাঁরা পৌঁছাবেন ইতালিতে।

ইটালির ভেনিসে পৌঁছে আবার ধরা হবে ফেরি। ফেরিতে করে গ্রিস পৌঁছে কিছু পথ সাইকেলযাত্রার পর সাগর পাড়ি দিয়ে শুরু হবে বিমানযাত্রা। আট হজযাত্রীর যাত্রা শেষ হবে সৌদি আরবে ইয়ানবু থেকে মদিনা শহরে পৌঁছানোর মধ্য দিয়ে।

এর আগে ‘হিউম্যান এইড’ নামে এই সংস্থাটি সিরিয়ার মানুষকে বিভিন্নভাবে সাহায্য করে এসেছে। চলতি বছর যুক্তরাজ্য ও মালয়েশিয়ার বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে মিলিত হয়ে তারা সিরিয়ায় ৮০ থেকে ৮৫টি অ্যাম্বুলেন্স পাঠিয়েছে। এবারের সংগৃহীত অর্থের মাধ্যমে ওই অ্যাম্বুলেন্সগুলোর মেরামত ও সেগুলোর জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি কেনা হবে।

সাইকেলযোগে হজযাত্রার এই উদ্যোগের পরিকল্পনা করেন আবদুল ওয়াহিদ নামে এক ব্যক্তি। ১১ বছর আগে তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন।

ওয়াহিদ বলেন, ‘আমি সাইকেলযাত্রা পছন্দ করি। আর আমি হজেও যেতে চাই। তাই আমরা কি পুরোনো দিনের মতো যাত্রা করতে পারি না?’

এর আগে ২০১৫ সালে ওয়াহিদ সাইকেল চালিয়ে লন্ডন থেকে সৌদি আরবে যান। এরপর তিনি বুঝতে পারেন হজ করার জন্যও এভাবে সৌদি পৌঁছানো সম্ভব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *