একদিনে সরকারি চাকরির ৩ পরীক্ষা, বিপাকে প্রার্থীরা

একই দিনে সরকারি চাকরির জন্য তিনটি পরীক্ষার তারিখ পড়ায় অনেকে আবেদন করেও পরীক্ষায় অংশ নিতে পারছেন না। এ অবস্থায় বিপাকে পড়েছেন অসংখ্য চাকরিপ্রার্থী।

একই দিনে সরকারি চাকরির জন্য তিনটি পরীক্ষার তারিখ পড়ায় অনেকে আবেদন করেও পরীক্ষায় অংশ নিতে পারছেন না। এ অবস্থায় বিপাকে পড়েছেন অসংখ্য চাকরিপ্রার্থী।একই দিনে সরকারি চাকরির জন্য তিনটি পরীক্ষার তারিখ পড়ায় অনেকে আবেদন করেও পরীক্ষায় অংশ নিতে পারছেন না। এ অবস্থায় বিপাকে পড়েছেন অসংখ্য চাকরিপ্রার্থী।

আগামী ২৮ আগস্ট ১৭টি জেলায় সরকারি প্রাইমারি স্কুলে প্রাক-প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। একই দিন বেসরকারি স্কুল-কলেজে নিবন্ধন পরীক্ষা রয়েছে। এছাড়া ওই দিন বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার পদের জন্য প্রিলিমিনারি পরীক্ষা রয়েছে।

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ রয়েছে ২৮ আগস্ট শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। কৃষি ব্যাংকের পরীক্ষা হবে সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা। আর প্রাইমারি স্কুলের পরীক্ষা হবে বিকেল ৩টা থেকে।

সময়সূচিতে দেখা যায় দুটি পরীক্ষার সূচি একই সময়ে এবং আরেকটি বিকেলে। তবে পরীক্ষার্থীরা জানান, সকালে অংশ নিয়ে বিকেলে অন্য পরীক্ষায় অংশ নেয়ার সুযোগ নেই পরীক্ষার কেন্দ্র ভিন্ন জেলায় হওয়ায়।

প্রাক-প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের জন্য দ্বিতীয় দফায় ১৭ জেলায় লিখিত পরীক্ষা ২৮ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় দফায় যে জেলাগুলোতে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে সেগুলো হলো জয়পুরহাট, চুয়াডাঙ্গা, মাগুরা, শেরপুর, গাজীপুর, মানিকগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, রাজবাড়ী, মাদারীপুর, লক্ষ্মীপুর, কক্সবাজার, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বরগুনা, ভোলা, পঞ্চগড় ও বাগেরহাট।

১৭ জেলায় মোট এক লাখ ৫০ হাজার ৭৬৫ জন পরীক্ষার্থী দ্বিতীয় দফায় অংশ নেবেন। গত ২৭ জুন বেশ কয়েকটি জেলায় প্রথম দফায় পরীক্ষা নেয়া হয়।

গত ১২ ও ১৩ জুন যথাক্রমে স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার প্রিলিমিনারি টেস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে। যারা প্রিলিমিনারিতে উত্তীর্ণ হয়েছেন তাদের আগামী ২৮ আগস্ট ও কলেজ পর্যায়ে ২৯ আগস্ট সকাল ৯টা থেকে ১২টা পর্যন্ত পরীক্ষায় অংশ নেবেন।

অনেক পরীক্ষার্থী একাধিক পরীক্ষার জন্য দরখাস্ত করেও অংশ নিতে পারবেন না একই দিন পরীক্ষার তারিখ পড়ায়।

অনেক প্রার্থী রয়েছেন যারা নিবন্ধন পরীক্ষায় প্রিলিমিনারি টেস্টে উত্তীর্ণ হয়েছেন। তারা পড়েছেন সবচেয়ে বেশি সমস্যায়। দ্বিধাদ্বন্দ্বে রয়েছেন আরো অনেক পরীক্ষার্থী। তারা অনুরোধ করেছেন— এসব পরীক্ষার সময়সূচি পরিবর্তন করা হোক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *