সনিতে সাইবার হামলার তদন্তে এফবিআই

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন হত্যা নিয়ে কমেডি চলচ্চিত্র নির্মাণের পর সনি কোম্পানির তথ্য হ্যাক করা হয়েছে। এই জাতীয় নিরাপত্তা ইস্যু বলে বর্ণনা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন হত্যা নিয়ে কমেডি চলচ্চিত্র নির্মাণের পর সনি কোম্পানির তথ্য হ্যাক করা হয়েছে। এই জাতীয় নিরাপত্তা ইস্যু বলে বর্ণনা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন হত্যা নিয়ে কমেডি চলচ্চিত্র নির্মাণের পর সনি কোম্পানির তথ্য হ্যাক করা হয়েছে। এই জাতীয় নিরাপত্তা ইস্যু বলে বর্ণনা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

হোয়াইট হাউজ বলছে, সনি পিকচার্সের ওপর সাইবার হামলা একটি ভয়াবহ জাতীয় নিরাপত্তার বিষয়। তথ্য প্রমাণে দেখা যাচ্ছে, এই হামলা অসৎ উদ্দেশে করা হয়েছে। সেখানে উত্তর কোরিয়ার নাম উল্লেখ করা হয়নি।

এই সাইবার হামলার সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার কোনো যোগসূত্র আছে কি না- তা তদন্ত করে দেখছে এফবিআই।

এর আগে ‘দ্য ইন্টারভিউ’ সিনেমাটি প্রদর্শন করা হলে পরিণামে আরও সহিংসতা হতে পারে বলে হুমকি দিয়েছিল হ্যাকাররা।

হুমকির মুখে সিনেমা হলগুলো ‘দ্য ইন্টারভিউ’ প্রদর্শনে রাজি না হওয়ায় আগামী সপ্তাহে এর মুক্তির সিদ্ধান্ত বাতিল করেছে সনি।

হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র জস আর্নেস্ট বলেছেন, এই ঘটনাকে ভয়াবহ জাতীয় নিরাপত্তার ইস্যু হিসেবে দেখা হচ্ছ। বিচার বিভাগ এবং এফবিআই এর তদন্তকারী এজেন্সিগুলো বিষয়টির দায়িত্ব নিয়েছে।

প্রসঙ্গত, উত্তর কোরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে ‘দ্য ইন্টারভিউ’ নামে একটি কমেডি সিনেমা তৈরি করে সনি পিকচার্স। সেখানে দেখানো হয়, দেশটির নেতা কিম জন উনকে হত্যা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *