শ্যালা নদীতে নৌরুট স্থায়ীভাবে বন্ধের সুপারিশ

সুন্দরবনের শ্যালা নদীতে যে এলাকায় জ্বালানি তেলবাহী ট্যাংকার ডুবেছে, ওই এলাকায় নৌরুট স্থায়ীভাবে বন্ধের সুপারিশ করা হয়েছে।

সুন্দরবনের শ্যালা নদীতে যে এলাকায় জ্বালানি তেলবাহী ট্যাংকার ডুবেছে, ওই এলাকায় নৌরুট স্থায়ীভাবে বন্ধের সুপারিশ করা হয়েছে।সুন্দরবনের শ্যালা নদীতে যে এলাকায় জ্বালানি তেলবাহী ট্যাংকার ডুবেছে, ওই এলাকায় নৌরুট স্থায়ীভাবে বন্ধের সুপারিশ করা হয়েছে।

রোববার পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ সুপারিশ করা হয়। সভাশেষে পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম সাংবাদিক সম্মেলনে বিষয়টি জানান।

উপমন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব সাংবাদিকদের বলেন, শ্যালা নদীতে যেকোনো ধরনের জাহাজ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে নৌ মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

এর আগে গত মঙ্গলবার পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সুন্দরবনের শ্যালা নদীতে নৌ চলাচল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিল পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়।

আজকের সভায় শ্যালা নদী ও এর আশপাশের এলাকায় ছড়িয়ে পড়া যে তেল স্থানীয়রা সংগ্রহ করছেন, এর ক্রয়মূল্য বাড়ানোরও সুপারিশ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার শ্যালা নদীতে সাউদার্ন স্টার-৭ নামের তেলবাহী ট্যাংকার অপর একটি জাহাজের ধাক্কায় ডুবে যায়। এতে ওই ট্যাংকারে থাকা সাড়ে তিন লাখ লিটার ফার্নেস অয়েল সুন্দরবনের বিস্তৃত এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এতে পরিবেশের মারাত্মক বিপর্যয় হয়। ঘটনার পরদিন বুধবার থেকে ওই রুটে জাহাজ চলাচলের ওপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *