শহীদ মোঃ জঙ্গি:পর্দার আড়ালে থাকা কিংবদন্তি গীতিকার

শহীদ মোঃ জঙ্গি:পর্দার আড়ালে থাকা কিংবদন্তি গীতিকার

409
0
SHARE

কবিও কাব্যফজলে এলাহী পাপ্পু

নিচের ছবির মানুষটিকে চিনেন কিনা জানতে চাইবো না । ছবি দেখে অনেক প্রিয় এই মানুষটিকে অনেকেই চিনতে পারবেন না । কারন এই মানুষটিকে প্রচারের আলোয় কখনও কেউ দেখেনি । কিন্তু আমার সমবয়সী ও আজকের তরুন প্রজন্মের বাংলা গানের শ্রোতাদের যদি জিজ্ঞেস করি ‘শহীদ মোঃ জঙ্গি’ নামটি চিনেন কিনা? তাহলে সবাই আমার প্রশ্ন শুনে বিস্মিত হবেন কারন শহীদ মোঃ জঙ্গি নামটি যে বাংলা ব্যান্ড ও আধুনিক গানের ধ্রুপদি একটি নাম । যার একাধিক গান বাংলা ব্যান্ড সঙ্গীতের কালজয়ী গানগুলোর তালিকায় ঠাই করে নিয়েছে গত শতাব্দীতে । যিনি আমার সমবয়সী থেকে শুরু করে আজকের বর্তমান প্রজন্মের শ্রোতাদের কাছে অনেক প্রিয় তেমনি ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছেও যুগে যুগে জনপ্রিয় থাকবেন তাতে কোন সন্দেহ নেই । এমন অনেক শ্রোতা আছেন যারা এলআরবি’র ‘একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে’,‘ফেরারি মন’ কিংবা সামিনা চৌধুরীর ‘সময় যেন কাটে না ‘ গানগুলোর ভক্ত কিন্তু সেই শ্রোতা জানে না যে গানগুলো এই শহীদ মোঃ জঙ্গি এর লিখা গান । কারন জঙ্গি ভাই চিরকাল ছিলেন প্রচার বিমুখ। যিনি অন্যকে জনপ্রিয় হওয়ার পেছনে অবদান রেখেছেন কিন্তু নিজে রয়ে গেছেন প্রচার বিমুখ। কোনদিন কোথাও দেখিনি জঙ্গি ভাইকে সাক্ষাৎকার দিতে। কোন টিভি চ্যানেলে দেখিনি জঙ্গি ভাইকে নিয়ে প্রতিবেদন করতে যা খুব অবাক করেছে আমাকে। অথচ এই মানুষটি কত ব্যান্ড, কত শিল্পীর জনপ্রিয়তায় অবদান রেখে গেছেন নীরবে। আজ আমাদের টিভি চ্যানেল আর এফএম রেডিওগুলো সময়ের কত সুপারস্টার কে নিয়ে আলোচনায় মশগুল অথচ জঙ্গি ভাইয়ের মতো একাধিক কালজয়ী গানের অসাধারন গীতিকার ও কিংবদন্তি রয়ে যায় আমাদের চোখের আড়ালে যা শুধু এই বাংলাদেশেই সম্ভব।
বাংলা ব্যান্ড সঙ্গীতের কালজয়ী গানগুলোর তালিকায় ঠাই করে নিয়েছে গত শতাব্দীতে । যিনি আমার সমবয়সী থেকে শুরু করে আজকের বর্তমান প্রজন্মের শ্রোতাদের কাছে অনেক প্রিয় তেমনি ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছেও যুগে যুগে জনপ্রিয় থাকবেন তাতে কোন সন্দেহ নেই ।শহীদ মোঃ জঙ্গি হলেন আমাদের ব্যান্ড সঙ্গীতের সবচেয়ে প্রবীণ গীতিকারদের একজন। তাই তাঁকে শুধু একজন গীতিকার বললে ভুল হবে, তিনি আমাদের ব্যান্ড সঙ্গীতের ইতিহাসের এক নীরব সাক্ষী। যিনি দেখেছেন বহু জনপ্রিয় ব্যান্ড এর ভাঙ্গাগড়ার ইতিহাস। যার গান দিয়ে সোলস, রেনেসাঁ, এলআরবি’র মতো ব্যান্ড দলগুলো জনপ্রিয়তা পেয়েছে । যার গান গেয়ে একজন নাসিম আলী খান, আইয়ুব বাচ্চু, নকিব খান , পিলু খান, পার্থ বড়ুয়ার এর মতো শিল্পীরা হয়েছেন অমর। শুধু কি তাই? সেই ৯০ দশক থেকে আজো বিশ্ব শিশু দিবসের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ‘আজ যে শিশু পৃথিবীর আলোয় এসেছে ‘ যে গানটি গাওয়া হয় সেটিও এই মানুষটির লিখা গান । জঙ্গি ভাইকে নিয়ে বিস্তারিত লিখবো অন্য একদিন , আজ শুধু জঙ্গি ভাই সম্পর্কে অল্প কিছু কথা বলে যাই । জঙ্গি ভাইয়ের লিখা গান মানেই অসাধারন কথামালার সংমিশ্রণ। শুনলে মনে হবে খুব সহজ কথা কিন্তু সেই কথার গভীরতা বিশাল যা শ্রোতাকে ভাবিয়ে তোলে। জঙ্গি ভাইয়ের লিখা একটি গান আজ পর্যন্ত পেলাম না ‘ভালো না লাগার’ তালিকায় ফেলতে। আমার সমবয়সী শ্রোতারা জঙ্গি ভাইয়ের লিখা গান শুনে শুনে মহাভক্ত হয়ে গিয়েছিলো। গান শুনলেই বুঝতে পারতাম কোনটা জঙ্গি ভাইয়ের লিখা। ক্যাসেটের কভারে যে গানটির পাশে ‘শহীদ মোঃ জঙ্গি’ নামটি লিখা থাকতো সেটি আগে শুনতাম। কারন জঙ্গি ভাইয়ের গান মানেই মন শীতল করা গান । ‘সোলস’ ব্যান্ড এর চিরসবুজ কণ্ঠ নাসিম আলীর গানের কথা উঠলেই যে গানটির কথা সবার আগে মনে পড়ে শ্রোতাদের সেটি ‘জতিন স্যারের ক্লাসে’ যা জঙ্গি ভাইয়ের লিখা। গানটি সম্পর্কে জঙ্গি ভাইকে জিজ্ঞেস করতেই বললেন জঙ্গি ভাইয়ের বোর্ডিং এর নিচ তলার রেস্টুরেন্টে সেই সময় আইয়ুব বাচ্চু, নকিব খান, পিলু খান সহ অনেকেই আড্ডা দিচ্ছিলেন এক সন্ধায়। নাসিম আলী আড্ডায় উপস্থিত হয়েই জঙ্গি ভাইয়ের কাছে জনপ্রিয় হয় এমন একটি গান চাইলেন। জঙ্গি ভাই নাসিম আলী খানের কথায় মৃদু হেসে ১০ মিনিটের মধ্যে আড্ডায় বসে লিখে দিলেন ‘জতিন স্যারের ক্লাসে’ গানটি । নাসিম আলী কে গানটি হাতে দিয়ে বললেন ‘’এই নাও জনপ্রিয় হওয়ার মতো একটি গান লিখে দিলাম যা আগের ‘কোলাহল থেমে গেছে’ গানটির চেয়ে আলাদা এবং এই গানটি বেশি জনপ্রিয় হবে।‘’ হয়েছিলও তাই , নাসিম আলীর গানের কথা উঠলেই আজো এই গানটির কথাই সবার আগে মনে পড়ে শ্রোতাদের। ‘রেনেসাঁ’ ব্যান্ড এর প্রয়াত ভোকাল ফয়সাল সিদ্দিকি বগি যে ‘ হৃদয় কাদামাটির মূর্তি নয় ‘ গানটি দিয়ে শ্রোতাদের মনে চিরদিনের জন্য ঠাই করে নিয়েছেন সেটিও এই জঙ্গি ভাইয়ের লিখা গান । এলআরবি’র প্রথম অ্যালবামে প্রথম যে গানটি দিয়ে শুরু সেই ‘একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে’ গানটিও এই জঙ্গি ভাইয়ের লিখা। সেই ৯০ দশকে যদি আজকের মতো ইন্টারনেট , ফেইসবুক থাকতো তাহলে বলিউডের অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খানদের মতো লক্ষ লক্ষ অনুসারি ও ভক্ত জঙ্গি ভাইয়ের প্রোফাইলে ভরে যেতো। কারন জঙ্গি ভাইয়ের গান পছন্দ করতো না এমন শ্রোতা সেই সময়ে ছিল না। যারা সোলস, রেনেসাঁ, এলআরবি’র মতো ব্যান্ডগুলোর ভক্ত হয়েছিল জঙ্গি ভাইয়ের লিখা গান শুনে শুনে। জঙ্গি ভাইকে কতদিন যে আমি খুঁজেছি তা বলতে পারবো না। এই ফেসবুকে মাস তিনেক আগে জঙ্গি ভাইকে খুঁজে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছিলাম যেখানে ইশতিয়াক মাহমুদ ভাই একটি লিঙ্ক দিয়ে বললেন এই নিন ‘জঙ্গি ভাইয়ের প্রোফাইল লিঙ্ক’ । প্রথমে আমি বিশ্বাস করছিলাম না কিন্তু ইশতিয়াক ভাই আমাকে নিশ্চয়তা দিলেন যে ইনি সেই আমাদের প্রিয় জঙ্গি ভাই । এরপর জঙ্গি ভাইয়ের সাথে কথা হলো , অনেক অনেক অজানা তথ্য জানা হলো যা নিয়ে অন্য একদিন লিখবো। জঙ্গি ভাইয়ের সাথে কথা বলে আমি বিস্মিত হয়েছি উনার ব্যবহারে। একটিবারও মনে হয়নি জঙ্গি ভাই আমাকে চিনেনি, মনে হয়েছে আমি জঙ্গি ভাইয়ের বহুদিনের চেনা , অনেক আপন কেউ যা আমাকে সত্যি বিস্মিত করেছে। জঙ্গি ভাইয়ের সাথে যতদিন কথা বলেছি ততদিন ফোন রাখার পরই ভেবেছি সত্যি তো এই এমন অসাধারন মানুষের পক্ষেই সম্ভব অসাধারন সব গান লিখা। এখন শুধু অপেক্ষা করছি কবে প্রিয় এই মানুষটির সাথে দেখা হবে সেই সময়টার জন্য। জঙ্গি ভাই যেখানে থাকুন ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন সবসময়।।

আজ যারা গান লিখে , গান গায় তারা কেউ কি নিচে উল্লেখিত গানগুলোর সাথে পরিচিত আছেন? শুধু একজন শহীদ মাহমুদ জঙ্গির লিখা অনেকগুলো জনপ্রিয় গানের মধ্য থেকে খুব অল্প কিছু গানের লিস্ট দিলাম:
” হারানো বিকেলের গল্প বলি”
” একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে ” (এলআরবি)
” কি জানি কি এক দিন ছিল ” (এলআরবি)
”তৃতীয় বিশ্ব এমনই বিস্ময় ” (রেনেসাঁ )
” আজ যে শিশু ” (রেনেসাঁ)
”হৃদয় কাদা মাটির কোন মূর্তি নয় ”( রেনেসাঁ)
” আর দেশত যাইও তুই ” ( রেনেসাঁ)
” ননাইয়া ননাইয়া ” (রেনেসাঁ)
” হে বাংলাদেশ তোমার বয়স ” (রেনেসাঁ)
” ভালোবাসি ঐ সবুজের মেলা ” (সোলস)
” এক চোখে শুধু স্বপ্ন ” ( সোলস)
” চায়ের কাপে পরিচয় ” ( সোলস)
”যতিন স্যারের ক্লাসে ” (নাসিম আলী খান)
” কোলাহল থেমে গেলো ” (নাসিম আলী খান)
” তুমি তো বলেছিলে ঝিরিঝিরি বাতাসে” ( পিলু খান )
” সময় যেন কাটে না ” (সামিনা চৌধুরী )
” দক্ষিনা হাওয়া ঐ তোমার চুলে” ( পার্থ বড়ুয়া)
‘’ সেই কবে ছোট্ট দুটি কথা দিয়ে ( পার্থ বড়ুয়া)

আমি জানিনা এই গানগুলোর সাথে তাদের পরিচয় আছে কিনা ? তাঁরা কেউ জানে কিনা এই গানগুলোসহ আরও অসংখ্য এমন জনপ্রিয় ও কালজয়ী গানের পেছনের মানুষ একজন ব্যক্তি? জানে না বলেই আজ ” ডিস্কো বান্দর” কিংবা ” রুপবানে নাচে কোমর দুলাইয়া ” গান গেয়ে নিজেদের জনপ্রিয়তা বাড়ানোর চেষ্টা করে । একজন শহীদ মাহমুদ জঙ্গি আজ জীবিত আছেন অথচ তাঁর লিখা কোন নতুন গান নতুন প্রজন্মের শিল্পিদের কণ্ঠে শোনা যায় না এরচেয়ে দুঃখের বিষয় একজন শিল্পী ও শ্রোতার জন্য আর কি হতে পারে? গত ১৪ বছরে কত শত গান এলো আর গেলো । কত শিল্পী, গীতিকার জনপ্রিয় হলেন আর হারিয়ে গেলেন কিন্তু আমরা আজো পাইনি একজন শহীদ মাহমুদ জঙ্গি’কে । আর কতদিন বাংলা ব্যান্ড ও আধুনিক গানের একজন অসাধারন স্রস্টা শহীদ মাহমুদ জঙ্গী’র জন্য আমাদের অপেক্ষা করতে হবে তা আমার জানা নেই ।।

জঙ্গি ভাইয়ের অনেক গানের মধ্য থেকে অল্প কিছু গানের লিঙ্ক –
একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে- https://app.box.com/s/fe9t53jzkldrs3hyft36
তুমি ছিলে আমি ছিলাম- https://app.box.com/s/6bd0831a3cfe1174c410
এক চোখে শুধু স্বপ্ন – https://app.box.com/s/3mnhndqgdntby3z4vz9q
জতিন স্যারের ক্লাসে- https://app.box.com/s/0uy92q445uvu1xgy0o7i
কোলাহল থেমে গেছে – https://app.box.com/s/fc4xjizpfvbsx1vmjgyr
তুমি তো বলেছিলে – https://app.box.com/s/d60fxi89hb3vm3lpntz7
সেই কবে – https://app.box.com/s/2qbgmb7z31o1y6gduej3
সময় যেন কাটে না – https://app.box.com/s/0gs3trsgmy0qz5f482ec

ফজলে এলাহী পাপ্পুব্লগার, বাংলা চলচ্চিত্র ও দেশীয় গান সংগ্রাহক। ব্যক্তিগত উদ্যোগে পরিচালিত রেডিও বিজি ২৪ নামক দেশের সবচেয়ে বড় গানের সংগ্রহশালার কর্ণধার। বর্তমানে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত।

Comments

comments