‘লেডি হিটলারের হাত থেকে যেন আল্লাহ রক্ষা করেন’

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে ‘লেডি হিটলার’ আখ্যা দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে ‘লেডি হিটলার’ আখ্যা দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে ‘লেডি হিটলার’ আখ্যা দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

তিনি বলেন, ‘আজকে আমরা আল্লাহর কাছে দোয়া করবো, এই দুর্নীতিবাজ, জালেম, লেডি হিটলারের হাত থেকে যেন আল্লাহ আমাদেরকে রক্ষা করেন।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সরকারের উদ্দেশে বলেছেন, ‘জনগণের প্রতি তাদের কোনো দায়িত্ববোধ নেই। তারা শুধু লুটপাটে ব্যস্ত। বিদেশ থেকে এখন তারা পচা গম আমদানি করছে। এই গম এখন যাদেরকে দেয় কেউ নিতে চায় না। সেনাবাহিনীকে দিতে চেয়েছে, তারা রিফিউস করেছে। পুলিশকে দিতে চেয়েছে, তারাও নিতে চায়নি। এখন এগুলো তাহলে কাদের খাওয়াবে? আমরা বলতে চাই, এই পচা গম শুধু আওয়ামী লীগের লোকজনদের খাওয়ান। খেয়ে দেখুক, তাদের স্বাস্থ্য হয়তো আরেকটু ভাল হবে।’

রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সিটিতে জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) ইফতার মাহফিলে আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ সব কথা বলেন। রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, বিদেশী কূটনৈতিক ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সম্মানে এই ইফতার পার্টির আয়োজন করা হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে ইফতার মাহফিলে যোগ দেন বিএনপি প্রধান।

খালেদা জিয়া বলেন,‘আমরা পাশে ডাক্তার বদরুদ্দোজা চৌধুরী বসা আছেন, তিনি আরেকটু ভালো হেলথ বিষয়ে উপদেশ দিতে পারবেন। পচা গম খেয়ে দেখুক আওয়ামী লীগের লোকদের স্বাস্থ্য আরও ভাল হয় কিনা?’

বিএনপির প্রধান বলেন, ‘সুইস ব্যাংকে টাকা বাড়ছে, আর বাংলাদেশের মানুষ গরিব থেকে গরিব হচ্ছে। রাস্তাঘাটের কী অবস্থা দেখুন। পথ চলা যায় না।’

তিনি বলেন, ‘পবিত্র রমজান মাসে সকলকে রোজার শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। বর্তমানে যারা দেশ শাসন করছে তারা জনগণের প্রতিনিধিত্ব করেন না। তাই আজকে দেশের এই দূরাবস্থা। জনগণের প্রতি তাদের কোনো কোনো দায়িত্ব নাই। এ জন্য দেশ রক্ষার দায়িত্ব জনগণকে নিতে হবে।’

অনুষ্ঠানের উপস্থিত সবার প্রতি তিনি বলেন, ‘আসুন আমরা একসঙ্গে বসি। কে ছোট কে বড় সেই চিন্তা না করে আসুন দেশের বিপদে ঐক্যবদ্ধভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াই। দেশ ও দেশের মানুষকে রক্ষা করতে সকল রাজনৈতিক দলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

তিনি বলেন, ভোটবিহীন সরকার ক্ষমতায় রয়েছে। দেশে বেড়ে চলেছে দুর্নীতি, গুম, খুন, ধর্ষণ, ছিনতাই, চাঁদাবাজি। সরকারি দলের লোকেরা লুটপাটে ব্যস্ত। শেয়ারমার্কেট, বিসমিল্লাহ গ্রুপ, হলমার্ক, ডেসটিনি, পদ্মা সেতুর টাকা লুটপাট করেছে তারা। এখন টেন্ডার ছাড়া বড় বড় কনস্ট্রাকশনের কাজ নেওয়া হচ্ছে। নিজেদের মধ্যে কমিশন ভাগাভাগি করে নিচ্ছে।

চট্রগ্রামের পাহাড় ধসে হতাহতের ঘটনায় এ সময় দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান কাজী জাফর আহমেদের সভাপতিত্বে এবং দলের মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দারের সঞ্চালনায় এ আলোচনায় জামায়াতে ইসলামের ডা. রেদোয়ান উল্লাহ সাহেদী, এ্যাডভোকেট জসিম উদ্দিন, ইসলামী ঐক্য জোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামী, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) শফিউল আলম প্রধান, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীম, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, বাংলাদেশ ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি, ন্যাপ ভাসানীর আযহারুল হক, এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মুর্তজা, এনপিপি চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, ডেমোক্রেটিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ মনি, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) মহাসচিব ড. রেদোয়ান উল্লাহ, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহদাত হোসেন সেলিম, জাতীয় পার্টির (পার্থ) সালাহ উদ্দিন মতিন প্রকাশ, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক সাঈদ আমম্মেদ, কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এমএম আমিনুর রহমান, বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব খন্দকার গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, পিপলস লীগের মহাসচিব মাহবুব হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া বিএনপির সাবেক সংদস সদস্য মেজর (অব.) আকতারুজ্জামান ইফতার পার্টিতে যোগ দেন।

২০ দলের বাইরে ইফতার পার্টিতে যোগ দেন- বিকল্প ধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) সভাপতি আসম আবদুর রব, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের যুগ্ম সম্পাদক ইকবার সিদ্দিকী প্রমুখ।

এছাড়া গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী, সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ, অর্থনীতিবিদ মাহবুব উল্লাহ, দৈনিক ইনকিলাবের সম্পাদক এম এম বাহাউদ্দিন প্রমুখ।

বিএনপির নেতাদের মধ্যে ইফতারে যোগ দেন- বিএনপির শিক্ষা বিয়ষক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মহিলা দলের সভাপতি নূরে আরা সাফা, সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম দলের সভাপতি শামা ওয়ায়েদ প্রমুখ।

ইফতারের আগে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *