লক্ষ্য ড্র হলেও জয়ের জন্যেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ

ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে বাংলাদেশের মূল লক্ষ্য ড্র হলেও জয়ের জন্যেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে বাংলাদেশের মূল লক্ষ্য ড্র হলেও জয়ের জন্যেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে বাংলাদেশের মূল লক্ষ্য ড্র হলেও জয়ের জন্যেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। গত ৫ বছরে দেশের ক্রিকেটের আমূল পরিবর্তন হয়েছে এবং এটা প্রমাণ করতেই এটিকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে ধরছেন বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

টেস্টে বাংলাদেশের লক্ষ্য এবং অধিনায়কের ব্যাটিং পজিশন সম্পর্কে জানতে চাইলে মুশফিকুর রহিম বলেন, সব সময়ই আমাদের লক্ষ্য থাকে ভালো খেলার। এবারও সে রকমই আছে। গত সিরিজে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে দুর্দান্ত ড্র করেছিলাম। কিন্তু দ্বিতীয়টিতে আমরা ভালো করতে পারিনি। তবে আগামীকাল আমরা জয়ের লক্ষেই মাঠে নামব। আর তা সম্ভব না হলে আমরা ড্রয়ের কথা চিন্তা করব। এটাই আমাদের মূল লক্ষ্য। আমাদের বোলিং বিভাগের ২০ উইকেট নেওয়ার সামর্থ্য আছে। এ ছাড়া আমাদের ব্যাটিং লাইনআপও ভালো। সর্বোপরি ভালো করার জন্য আমাদের ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং তিন বিভাগেই ভালো করতে হবে। দলে যেহেতু রিয়াদ ভাই নেই; তাই চার নম্বরে ব্যাটিং করার চিন্তা করছি।

পেস আক্রমণ ও স্পিনারদের সম্পর্কে মুশফিক বলেন, আবহাওয়া ও উইকেটের দিকে লক্ষ্য রেখে দল নির্বাচন করা হবে। উইকেটে সামান্যতম ঘাস রয়েছে। এছাড়া এখন প্রচণ্ড গরম পড়ছে। পাশাপাশি এখানকার আবহাওয়াও একটু আলাদা। তাই সবকিছু দেখেই দল নির্বাচন করা হবে। তবে দলে পেস ও স্পিনের সমন্বয় অবশ্যই থাকবে। এ মুহূর্তে দলের সবাই মানসিক ও শারীরিকভাবে প্রস্তুত রয়েছে।

অতীতে ভারতের সাথে বাংলাদেশের পরফরম্যান্স ভালো নয়। এবার কেমন করবে বাংলাদেশ। আগের দলগুলো এবং এই দলটির মধ্যে কতটুকু পার্থক্য রয়েছে? এ বিষয়ে অধিনায়ক বলেন, ওদের সঙ্গে অতীতে আমরা ভালো করতে পারিনি। কিন্তু তা অতীত। বর্তমান ভারতীয় দল স্বাভাবিকভাবেই শক্তিশালী। আমরাও অনেক উন্নতি করেছি। আমাদের আত্মবিশ্বাস আছে। ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং সবদিক থেকেই আমরা তাদের সঙ্গে লড়তে পারব।

ভারতের বিপক্ষে এর আগে সাতটি টেস্ট খেললেও জয় নেই বাংলাদেশের। ৭টি ম্যাচের রেজাল্টে হার দেখার পাশাপাশি একটি ম্যাচ ড্র দেখেছিল সমর্থকরা। সর্বশেষ ২০১০ সালের জানুয়ারিতে ভারতের সঙ্গে টেস্টে মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। ওই ম্যাচেও ১০ উইকেটে হার দেখতে হয়েছিল বাংলাদেশকে। গত ৫ বছরে বাংলাদেশের ক্রিকেট অনেক বদলেছে এবং এটা প্রমাণ করতে ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচটি চ্যালেঞ্জ মনে করছেন টেস্ট অধিনায়ক মুশফিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *