জাতীয় সংলাপের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসনকে চিঠি দিয়েছে নাগরিক সমাজ।
জাতীয়

রাষ্ট্রপতি ও দুই নেত্রীকে নাগরিক সমাজের চিঠি

জাতীয় সংলাপের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসনকে চিঠি দিয়েছে নাগরিক সমাজ।জাতীয় সংলাপের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসনকে চিঠি দিয়েছে নাগরিক সমাজ।

সোমবার সন্ধ্যায় সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার এ টি এম শামসুল হুদার স্বাক্ষরিত চিঠিগুলো সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোতে পাঠানো হয়

দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও বিরাজমান সংকট উত্তরণের লক্ষ্যে ৭ ফেব্রুয়ারি নাগরিক সমাজ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। সভার বক্তব্যের আলোকে ও মতৈক্যের ভিত্তিতে একটি প্রস্তাব গৃহীত হয়। চিঠির সঙ্গে সংযুক্তি হিসেবে ওই প্রস্তাবগুলো পাঠানো হয়।

জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না চিঠি পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান সংশ্লিষ্ট দপ্তরে তা গ্রহণ করা হয়েছে। সংলাপের আহ্বান ছাড়াও দুই নেত্রী ও রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলোচনার জন্য নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে একটি কমিটি গঠনেরও প্রক্রিয়া চলছে। দু-এক দিনের মধ্যে এই কমিটি গঠন হবে বলে মান্না জানান।

আজ সোমবার গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে, দেশের চলমান সংকট নিরসন ও সংঘাতপূর্ণ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য জাতীয় সংলাপের লক্ষ্যে নাগরিক প্রতিনিধিদের নিয়ে একটি কমিটি গঠনের কাজ চলছে। কমিটিতে কারা থাকছেন, তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। দলনিরপেক্ষ বিশিষ্ট নাগরিকদের নিয়ে এ কমিটি করা হচ্ছে বলে উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন।

প্রধান দুই দলের অনড় অবস্থানের মধ্যে সংকট নিরসনে জাতীয় সংলাপের উদ্যোগ নিচ্ছেন বিশিষ্ট নাগরিকেরা। এরই অংশ হিসেবে গত শনিবার রাজধানীতে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার উদ্যোগে গোলটেবিল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

উদ্যোক্তাদের অন্যতম সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এ টি এম শামসুল হুদা রোববার বলেন, সংলাপের লক্ষ্যে জাতীয় সনদসহ অন্যান্য কাজ চূড়ান্ত করার কাজ চলছে। এতে চলমান সংকটের পাশাপাশি অন্যান্য সংকটের একটি স্থায়ী সমাধানের জন্য কিছু প্রস্তাবও থাকবে। জাতীয় সনদের কপি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে তাদের হাতে তুলে দেবেন। পাশাপাশি অন্য সব পক্ষের সঙ্গেও তারা কথা বলবেন। তিনি বলেন, কমিটি রাষ্ট্রপতিকেও সংলাপের উদ্যোগ নিতে অনুরোধ জাননো হবে।

এ উদ্যোগে যুক্ত মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, সরকার ও বিএনপির সঙ্গে কথা বলার জন্য গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের নিয়ে কমিটি গঠন করা হবে। রাজনীতির সঙ্গে প্রত্যক্ষ সম্পর্ক নেই এবং দলনিরপেক্ষ ব্যক্তিরা এ কমিটিতে থাকবেন।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *