রবি-এয়ারটেল একীভূতকরণে চুক্তি

রবি-এয়ারটেল একীভূতকরণে চুক্তি

রবি-এয়ারটেল একীভূতকরণে চুক্তিদেশের দুই বেসরকারি মোবাইল অপারেটর রবি ও এয়ারটেল একীভূতকরণে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে।

বৃহস্পতিবার রবি ও এয়ারটেলের পাঠানো এক যৌথ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, একীভূত হওয়ার এই প্রক্রিয়া আগামী দুই মাসের মধ্যে সম্পন্ন হবে। দুই কোম্পানির একীভূত শক্তি সবচেয়ে বিস্তৃত নেটওয়ার্কের সুবিধা নিয়ে গ্রাহকদের আরো উন্নত সেবা দেবে।

এতে আরো বলা হয়েছে, ২০১৫ সালের ৯ সেপ্টেম্বর রবি-এয়ারটেলের ব্যবসায়িক কার্যক্রম একীভূত করার সম্ভাবনার বিষয়ে আলোচনা শুরুর ঘোষণা দেওয়ার পর এ চুক্তি হলো। একীভূত কোম্পানিটি ‘রবি’ নামেই ব্যবসা পরিচালনা করবে। এতে রবির মালিকানা থাকবে ৭৫ শতাংশ আর এয়ারটেলের মালিকানা থাকবে ২৫ শতাংশ।

রবি আজিয়াটা মালয়েশিয়ার আজিয়াটা গ্রুপ বারহাদ ও জাপানের এনটিটি ডোকামোর যৌথ উদ্যোগ। এখানে আজিয়াটার শেয়ারের পরিমাণ ৯২ শতাংশ আর এনটিটি ডোকোমোর শেয়ারের পরিমাণ ৮ শতাংশ। ১৯৯৭ সালে একটেল নামে বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করে রবি।

বাংলাদেশের শিল্প গোষ্ঠী একে খান গ্রুপ ও টেলিকম মালয়েশিয়ার যৌথ অংশীদারি কোম্পানি ছিল একটেল। ২০০৯ সালে একে খান গ্রুপ ও টেলিকম মালয়েশিয়া আজিয়াটার কাছে রবির মালিকানা বিক্রি করে দেয়। ২০১০ সালের ২৮ মার্চ ‘রবি’ নামে বাংলাদেশে ব্যবসা শুরু করে এয়ারটেল।

ভারতের এয়ারটেল ২০১০ সালে ওয়ারিদ টেলিকমের ৭০ শতাংশ শেয়ার এক লাখ ডলারের বিনিময়ে কিনে নিয়ে এয়ারটেল বাংলাদেশ নামে ব্যবসা শুরু করে। ২০১৩ সালে ৮ কোটি ৫০ লাখ ডলারের বিনিময়ে বাকি ৩০ শতাংশ কিনে নেয় ভারতের এয়ারটেল।

রবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সুপুন বীরাসিংহের বরাত দিয়ে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘বাংলাদেশের বর্তমান অসম প্রতিদ্বন্দ্বিতা ও প্রতিযোগিপূর্ণ টেলিযোগাযোগ খাতে একীভূতকরণ অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। একীভূতকরণের মাধ্যমে এই খাতের দুই শীর্ষস্থানীয় অপারেটর তাদের সম্মিলিত ক্ষমতা কাজে লাগাতে পারবে, যা এই শিল্পের সার্বিক কল্যাণ ও জাতীয় অর্থনীতিতে আরো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সহায়ক হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *