যে ১০ কারণে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে

যে ১০ কারণে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে

কেন বার বার সারা বিশ্বে বেড়ে চলেছে আত্মহত্যার প্রবণতা? আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছেন যুবক, যুবতীরা? আমরা কি যথেষ্ট সচেতন? দেখে নিন কোন ১০ কারণের জন্য সবচেয়ে বেশি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটছে।

১. গভীর অবসাদ
আত্মহত্যার অন্যতম কারণ। গভীর অবসাদে মানুষ জীবনের প্রতি সম্পূর্ণ উৎসাহ হারিয়ে ফেলে। মৃত্যুই তখন তাদের কাছে মুক্তির উপায় হয়ে ওঠে।

২. হতাশা
সম্পর্কে বিশ্বাসঘাতকতা, ক্রমাগত ব্যর্থতা মানুষকে হতাশার গহ্বরে ঠেলে দেয়। তখন আত্মহত্যার পথ বেছে নেন অনেকেই।

৩. ভয়
আমাদের সকলেরই জীবনে কোনো না কোনো কিছুতে ভয় রয়েছে। সেই ভয়ের সম্মুখীন হলে অনেকেই মোকাবিলা করতে পারেন। তার থেকে বেছে নেন মৃত্যু।

৪. অবাস্তব টার্গেট
অনেকেই জীবনে সেরা হতে চান। অবাস্তব টার্গেট তৈরি করেন। স্বপ্নপূরণ না হওয়ায় মেনে নিতে পারেন না।

৫. অনুতাপ
ভুল সকলেই করেন। ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যাওয়াই জীবনের ধারা। কিন্তু অনেকেই ভুলের জন্য অনুতাপে ভুগতে থাকেন, নিজেকে ক্ষমা করতে না পেরে আত্মহত্যা করেন।

৬. ট্রমা
দুর্ঘটনা, কাছের মানুষের মৃত্যু, শারীরিক নির্যাতনের মতো অভিজ্ঞতা থেকে বেরোতে না পেরে ট্রমায় ভুগতে থাকলে অনেকেই আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।

৭. মানসিক অসুস্থতা
অনেক সময়ই মানসিকভাবে অসুস্থ মানুষদের নিয়ে আমরা মজা করি। এদের পাশে দাঁড়ান। মানসিক অসুস্থতা ডেকে আনতে পারে আত্মহত্যা।

৮. স্ট্রেস
জীবনে সফল হতে সকলেই চান, পরিশ্রমও করেন। কিন্তু পারিপার্শ্বিক প্রত্যাশার চাপ পূরণ করতে না পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন অনেকে।

৯. নেগেটিভ মন্তব্য
নিজের সম্পর্কে তীর্যক মন্তব্য, সমালোচনা, ঠাট্টা-তামাশা শুনতে শুনতে আত্মবিশ্বাস তলানিতে ঠেকলেও অনেকে এভাবে পালিয়ে বাঁচতে চান।

১০. বেকারত্ব
ভাল রোজগার, আর্থিক নিরাপত্তা সকলেই চান। প্রতি বছর বিশ্বে ৪৫,০০০ মানুষ আত্মহত্যা করেন বেকারত্বের কারণে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *