হয়তো অভ্যাসবশত কিংবা স্বাভাবিক নিয়মেই কাজগুলো করে যাচ্ছেন, কিন্তু একেবারেই জানতে পারছেন না এই ছোটোখাটো কাজগুলোই আপনার দেহের মারাত্মক কোনো বিপদ বয়ে আনছে।
সাময়িকী

প্রতিদিনের যে অভ্যাস ক্ষতি করছে আপনার

হয়তো অভ্যাসবশত কিংবা স্বাভাবিক নিয়মেই কাজগুলো করে যাচ্ছেন, কিন্তু একেবারেই জানতে পারছেন না এই ছোটোখাটো কাজগুলোই আপনার দেহের মারাত্মক কোনো বিপদ বয়ে আনছে।রাতদিন আমরা অনেকেই এমন কিছু কাজ করি যা স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতির কারণ রয়ে দাঁড়ায়। আপনি হয়তো অভ্যাসবশত কিংবা স্বাভাবিক নিয়মেই কাজগুলো করে যাচ্ছেন, কিন্তু একেবারেই জানতে পারছেন না এই ছোটোখাটো কাজগুলোই আপনার দেহের মারাত্মক কোনো বিপদ বয়ে আনছে। তাই এখনই সতর্ক হয়ে যান। নিজের এই ছোট্ট অভ্যাসগুলো দূর করার চেষ্টা করুন এবং সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবন নিশ্চিত করুন।

১. সটান হয়ে দাঁড়িয়ে থাকা
অনেকেই দাঁড়ানোর সময় হাঁটু একেবারে সোজা করে দাঁড়ান। কিন্তু এই কাজের কারণে অতিরিক্ত চাপ পড়ছে আপনার হাঁটুর জয়েন্টে, যার কারণে ধীরে ধীরে ক্ষয়ে যেতে পারে আপনার হাঁটুর জয়েন্ট। তাই দাঁড়ানোর সময় হাঁটু সামান্য বাঁকা করে দাঁড়ান, সবসময় সোজা হয়ে দাঁড়ানোর প্রয়োজন নেই।

২. উপুড় হয়ে ঘুমানো
অনেকেই চিৎ হয়ে বা কাত হয়ে ঘুমান না। আরমের জন্য উপুড় হয়ে পেটে ভর দিয়ে ঘুমাতে পছন্দ করেন। কিন্তু জেনে রাখুন এতে আপনার পরিপাকতন্ত্রের মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে। এছাড়াও যখন আপনি উপুড় হয়ে ঘুমান তখন মাথা কাত করে রাখতে হয় যার কারণে আপনার মেরুদন্ডের উপর চাপ পড়ছে এবং ক্ষতি হচ্ছে সেখানেই। সুতরাং এই ব্যাপারে সর্তক হোন।

৩. সারাক্ষণ চুইংগাম চিবোনো
অনেকেই সারাক্ষণ চুইংগাম চিবোতে থাকেন। সারাক্ষণ না হলেও দীর্ঘসময় এই কাজটি করার অভ্যাস রয়েছে অনেকেরই। কিন্তু এই কাজটির কারণে ক্ষতি হচ্ছে আপনার চোয়ালের। সুতরাং অভ্যাসটি ত্যাগ করুন।

৪. অনেক বেশি টাইট করে বেল্ট পড়া
অনেকেই নিজেকে একটু স্লিম দেখাবার জন্য অনেক টাইট করে বেল্ট পড়েন। কিন্তু অনেকটা সময় ধরে টাইট করে বেল্ট পড়ার কারণে আপনার পেটে অতিরিক্ত চাপ পড়ে যার কারণে খাবার সঠিকভাবে হজম হতে পারে না এবং অ্যাসিডিটি সৃষ্টি করে।

৫. একটানা বসে থাকা
কাজ করার জন্য অনেকেই একটানা বসে থাকেন যা স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এটি নানা শারীরিক সমস্যার জন্য দায়ী।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *