৭ জুন বিকালে নরেন্দ্র মোদি-খালেদা জিয়া বৈঠক

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদীর সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বৈঠকটি ৭ জুন রোববার বিকেল চারটায় হোটেল সোনারগাঁওয়ে অনুষ্ঠিত হবে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদীর সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বৈঠকটি ৭ জুন রোববার বিকেল চারটায় হোটেল সোনারগাঁওয়ে অনুষ্ঠিত হবে।ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেদ্র মোদীর সঙ্গে বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বৈঠকটি হচ্ছে হোটেল সোনারগাঁওয়ে। ৭ জুন রোববার বিকেল চারটার সময়ে এ বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে।

শুক্রবার বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের দায়িত্বশীল সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

দিল্লিতে এক সংবাদ সম্মেলনে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব সুব্রামানিয়াম জয়শঙ্কর নরেন্দ্র মোদি-খালেদা জিয়া বৈঠকের তথ্য জানান।

বিএনপির নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সূত্র জানিয়েছে, রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে খালেদা জিয়ার একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে পারে। সেখানে তিনি (খালেদা জিয়া) তার দলের পক্ষ থেকে একটি লিখিত বক্তব্যও হস্তান্তর করবেন মোদির কাছে। এ ছাড়া বাংলাদেশের মানুষের জীবনযাত্রার মান ও অবস্থাসহ দুই দেশের পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় ছাড়াও জাতীয়, আঞ্চলিক এবং আন্তর্জাতিক বিষয়াদি নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা করবেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।

সুব্রামানিয়াম সংবাদ সম্মেলনে জানান, আগামী ৭ জুন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বাংলাদেশ সফরকালে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, সংসদীয় বিরোধীদলীয় নেত্রী ছাড়াও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গেও বৈঠক করবেন।

৬ জুন ৩৬ ঘণ্টার সফরে ঢাকায় আসছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সবকিছু ঠিক থাকলে সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে স্বাগত জানাবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তাকে স্বশস্ত্র অভ্যর্থনা জানান হবে। এরপর বিমানবন্দরে উপস্থিত বাংলাদেশের মন্ত্রিপরিষদ, তিন বাহিনীর কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট ভারতীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করবেন নরেন্দ্র মোদি।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ৬ জুন ১১টা ১৫ মিনিটে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধের উদ্দেশে রওয়ানা দিবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। সেখানে নরেন্দ্র মোদিকে স্বাগত জানাবেন গৃহায়ন ও পূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী একেএম মোজাম্মেল হক ও স্থানীয় সাংসদ। এ সময় সেখানে নবম পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল ওযাকের-উজ-জামান উপস্থিত থাকবেন।
সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে নরেন্দ্র মোদি এক মিনিট নীরবতা পালন, জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও মন্তব্য খাতায় অনুভূতি ব্যক্ত করবেন। এ ছাড়া সেখানে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে একটি বৃক্ষরোপণ করবেন তিনি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা জানাতে নরেন্দ্র মোদি শনিবার ১২টা ১৫ মিনিটে সাভারের জাতীয় স্মৃতি সৌধ থেকে ধানমন্ডিতে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের উদ্দেশে রওয়ানা দিবেন। সেখানে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে স্বাগত জানাবেন।
বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর থেকে দুপুর ১টা ২৫ মিনিটে নরেন্দ্র মোদি বিশ্রামের জন্য তারকা খচিত অভিজাত আবাসিক হোটেল সোনারগাঁওয়ের উদ্দেশে রওয়ানা দিবেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী দুপুর ৩টা ৩০ মিনিটে হোটেল সোনারগাঁওয়ে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে ১৫ মিনিটের সৌজন্য সাক্ষাত করবেন।

এর আগে সকালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেছিলেন, সফরকালে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে খালেদা জিয়ার বৈঠকের কোনো সম্ভাবনা নেই।
ব্রিফিংয়ে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বলেন, সফরের দ্বিতীয় দিনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন মোদি। এরপরই তিনি বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। এর মধ্যে আছেন বিরোধীদলীয় নেত্রী রওশন এরশাদ ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *