অন্তিম শয়ানে কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলী
খেলা

অন্তিম শয়ানে কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলী

অন্তিম শয়ানে কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলীকিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলীকে শেষবারের মতো শ্রদ্ধা জানাতে তার নিজের শহর লুইসভিলে শুক্রবার পরিবারের সদস্য, আত্মীয়স্বজন, ঘনিষ্ঠ বন্ধু, আমন্ত্রিত অতিথিসহ লাখো মানুষ উপস্থিত হয়।

দুই দিনব্যাপী আয়োজিত ধর্মীয় অনুষ্ঠানের প্রথম দিন বৃহস্পতিবার পারিবারিকভাবে মোহাম্মদ আলীর জানাজা হয়। শুক্রবার হচ্ছে তিনবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন মোহাম্মদ আলী স্মরণে আন্তধর্মীয় অনুষ্ঠান। আজই অন্তিম শয়ানে যাবেন কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলী।

দাফনের আগে লুইভিলে মোহাম্মদ আলীর কফিন নিয়ে শোক শোভাযাত্রা হবে। আলীর স্মৃতিবিজড়িত কিছু স্থান, যেমন তার শৈশবের বাড়ি, আলী সেন্টার, দ্য সেন্টার ফর আফ্রিকান আমেরিকান হেরিটেজ, মুহাম্মদ আলী বুলভার্ড অতিক্রম করবে শোভাযাত্রাটি।

শোকযাত্রায় আলীর কফিনের পাশে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যে থাকবেন রুপালি পর্দায় মুহাম্মদ আলীর চরিত্রে রূপ দেওয়া হলিউডের নামী অভিনেতা উইল স্মিথ ও সাবেক বক্সার লেনক্স লুইস। তারা কফিনের কাপড় ধরে থাকবেন।

আর প্রশংসা উক্তি পড়ে শোনাবেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চলীয় কেন্টাকি অঙ্গরাজ্যের লুইভিলে পারিবারিকভাবে ছোট পরিসরে জানাজা হয় ‘দ্য গ্রেটেস্ট’-এর। শহরের ফ্রিডম হল এলাকায় অনুষ্ঠিত হয় এই জানাজাসহ ৩০ মিনিটের প্রার্থনা অনুষ্ঠান। ১৯৬১ সালের ২৯ নভেম্বর এখানেই এক লড়াইয়ে আলী হারিয়ে দেন উইলি বেসম্যানফকে। বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠান সম্পর্কে ইমাম জায়িদ শাকির বলেন, ইসলামী রীতি অনুযায়ী তার জানাজা হয়েছে।

আন্তধর্মীয় স্মরণানুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে বিভিন্ন দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান এবং অন্যান্য অতিথি ও সাধারণ ভক্তদের। অনুষ্ঠানে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান, কৌতুক অভিনেতা বিলি ক্রিস্টালসহ অনেক বিশিষ্টজন অংশ নেবেন বলে জানা গেছে। স্মরণানুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য ১৫ হাজার বিনা মূল্যের টিকিট ছাড়ার আধা ঘণ্টার মধ্যে তা শেষ হয়ে যায়।

বর্ণাঢ্য জীবনে মুহাম্মদ আলী তিনবার বিশ্ব হেভিওয়েট বক্সিং চ্যাম্পিয়নের খেতাব অর্জন করেন। নিজ দেশে কৃষ্ণাঙ্গদের নাগরিক অধিকার আদায়ের লড়াইয়ে নিবেদিতপ্রাণ ছিলেন। যুদ্ধবিরোধিতার জন্য মানবতাবাদী হিসেবেও সাধুবাদ কুড়িয়েছেন। দশকব্যাপী পারকিনসন রোগের সঙ্গে লড়ে গত সপ্তাহে ৭৪ বছর বয়সে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

খ্রিষ্টান পরিবারে জন্মগ্রহণ করা আলীর নাম ছিল ক্যাসিয়াস ক্লে। ১৯৬৪ সালে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার পর নাম পাল্টে রাখেন মুহাম্মদ আলী।

বিভিন্ন ধর্ম-বর্ণের প্রায় ১৪ হাজার মানুষ জড়ো হয়েছিল তার জানাজায়। মানুষের চোখে তিনি শুধু মুষ্টিযুদ্ধে একজন বিজয়ী নন, তিনি জনমানুষের প্রিয় ব্যক্তিত্ব।

মোহাম্মদ আলী তিনবার হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। একাধারে একজন দক্ষ ও চতুর খেলোয়াড়, রাজনৈতিক কর্মী এবং মানবতাবাদী আলী অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যের একটি হাসপাতালে সেপটিক শকে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

বক্সিং খেলাটিকে বিশ্বের আপামর মানুষের কাছে যিনি জনপ্রিয় করেছিলেন তিনি আলী। বক্সিং রিংয়ে প্রজাপতির মতো নেচে নেচে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার দৃশ্যটি মানুষ মন্ত্রমুগ্ধের মতো দেখত। এই বাংলাদেশেও তার অসংখ্য ভক্ত তৈরি হয়েছিল।

আশির দশকে বিটিভিতে যখন তার ম্যাচ প্রচারিত হতো তখন নাকি রাস্তাঘাট খালি হয়ে যেত। কোনো ম্যাচে তিনি হেরে গেলে কেঁদে বুক ভাসাতো বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে ছটিয়ে থাকা তার লাখো কোটি ভক্ত।

তিনি তিনবারের ওয়ার্ল্ড হেভিওয়েট চ্যাপিয়ন এবং অলিম্পিক লাইট-হেভিওয়েট স্বর্ণপদক বিজয়ী হন। ৬১টি বক্সিং প্রতিযোগিতার মধ্যে ৫৬টিতেই জয়ী হন তিনি। পরাজিত হয়েছিলেন মাত্র পাঁচবার।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *