মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির ১৮৮ জন সমর্থককে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত।
আন্তর্জাতিক

মুরসির ১৮৮ সমর্থকের মৃত্যুদণ্ডাদেশ

মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির ১৮৮ জন সমর্থককে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত।মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির ১৮৮ জন সমর্থককে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত।

২০১৩ সালে কায়রোর কাছে একটি পুলিশ স্টেশনে হামলার দায়ে তাদের এই শাস্তি দেয়া হয়। ওই ঘটনার দিনই মুরসি সমর্থকদের একটি শিবির গুঁড়িয়ে দেয় দেশটির নিরাপত্তা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। এ ঘটনায় শতাধিক মুরসি সমর্থক নিহত হন।

মৃত্যুদণ্ডাদেশ পাওয়া আসামিদের মধ্যে ১৪৩ জন কারাগারে আছেন। অন্যরা পলাতক রায়েছেন।

আসামিরা এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারেন। আগামী বছর ২৪ জানুয়ারি চূড়ান্ত রায় ঘোষণা করা হতে পারে।

এর আগেও মুসলিম ব্রাদারহুডের কয়েকশ নেতা-কর্মী-সমর্থককে গণহারে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন মিসরের আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা ২০১৩ সালের ১৪ আগস্ট কের্দাসা গ্রামে একটি পুলিশ স্টেশনে হামলা চালিয়ে অন্তত ১১ পুলিশ কর্মকর্তাকে হত্যা করেন।

একই দিন মিনিয়ার একটি পুলিশ স্টেশনে হামলার দায়ে এর আগে ৫০০ জনেরও বেশি লোককে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়।

দেশটিতে ২০১৩ সালে সেনা শাসনবিরোধী আন্দোলনে অংশ নেয়া বহু ইসলামপন্থীকে মৃত্যুদণ্ডদেশ দেয়া হয়েছে। তবে এখনো তা কার্যকর করা হয়নি।

এদিকে গত শনিবার দেশটির একটি আদালত সাবেক স্বৈরশাসক হোসনি মোবারক ও তার সময়কার কর্মকর্তাদের যাবজ্জীবন শাস্তি বাতিল করে খালাস দিয়েছেন। তাদের এর আগে ২০১১ সালে আরব বসন্তের সময় আন্দোলনকারীদের হত্যার অভিযোগে যাবজ্জীবন দিয়েছিলেন অপর একটি আদালত।

প্রসঙ্গত, দেশটিতে গণআন্দোলনের মুখে ৩০ বছর ধরে শাসন করা স্বৈরশাসক হোসনি মোবারকের (৮৬) পতনের পর প্রথম গণতান্ত্রিক নির্বাচনে জয়ী হয়ে প্রেসিডেন্ট হন মোহাম্মদ মুরসি। ২০১৩ সালের এপ্রিলে মুরসিকে পদচ্যুত করে ক্ষমতা নেয় সিসি নেতৃত্বাধীন সেনাবাহিনী।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *