জামিনে মুক্তি পেয়েছেন মির্জা ফখরুল

জামিনে মুক্তি পেয়েছেন মির্জা ফখরুল

জামিনে মুক্তি পেয়েছেন মির্জা ফখরুলকারাগার থেকে মুক্তি পেলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। মঙ্গলবার রাত ৮টায় গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি।

রাজধানীর পল্টন থানায় দায়ের করা নাশকতার তিন মামলায় তাকে জামিন দেয়া হয়েছে।

নাশকতার তিন মামলায় মির্জা ফখরুলকে হাইকোর্টের দেয়া তিন মাসের জামিনের রায় গত সোমবার বহাল রাখে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বে আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেয়।

তার আগে গত ২৪ নভেম্বর পল্টন থানার নাশকতার তিন মামলায় মির্জা ফখরুলের স্থায়ী জামিন প্রশ্নে রুলের রায়ে তিন মাসের জামিন মঞ্জুর করা হয়েছিল। বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি মো. খসরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ ওই জামিন মঞ্জুর করেছিলেন।

হাইকোর্টের এ রায় স্থগিতে আবেদন করলে গত বৃহস্পতিবার চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর আদালত শুনানির জন্য ৩০ নভেম্বর পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে ‍পাঠানোর আদেশ দেন।

মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগে ৭৯টি মামলা হয়েছে। ২০১১ সালে তার বিরুদ্ধে প্রথম মানহানির অভিযোগে একটি মামলা করেন তৎকালীন আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম (বর্তমানে খাদ্যমন্ত্রী)। ওই মামলায় পরে তিনি খালাস পান।

সর্বশেষ চলতি বছরের গত ৬ জানুয়ারি মির্জা ফখরুলকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে আটক করা হয়। এরপর গাড়ি পোড়ানো, ভাঙচুর ও নাশকতার অভিযোগে রাজধানীর পল্টন ও মতিঝিল থানায় দায়ের করা সাতটি মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

ঢাকাসহ সারা দেশে এক দিনেই মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে ৩৭টি মামলা হয়। প্রায় সব মামলাতেই বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে নাশকতা, গাড়ি পোড়ানো বা ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও পুলিশের কর্তব্যকাজে বাধা দেয়ার অভিযোগ আনা হয়। এর মধ্যে ২২টি মামলার অভিযোগপত্র দেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *