বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর গুরুত্বপূর্ণ নেতা মীর কাসেম আলীর বিরুদ্ধে করা মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার রায় আগামী রোববার ঘোষণা করা হবে।
জাতীয়

মীর কাসেম আলীর রায় রোববার

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর গুরুত্বপূর্ণ নেতা মীর কাসেম আলীর বিরুদ্ধে করা মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার রায় আগামী রোববার ঘোষণা করা হবে।বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর গুরুত্বপূর্ণ নেতা মীর কাসেম আলীর বিরুদ্ধে করা মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার রায় আগামী রোববার ঘোষণা করা হবে।

অপেক্ষমান মামলটি রোববার ট্রাইব্যুনালের কার্যতালিকায় রাখা হয়েছে।  মীর কাসেম আলীর বিরুদ্ধে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় আটক, অপহরণ, নির্যাতন, হত্যাসহ ১৪টি অভিযোগের ওপর শুনানি কর হয়েছে।

জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সদস্য মীর কাসেম আলী ১৯৭১ সালে মূলত চট্টগ্রাম শহরকে কেন্দ্র করে নির্যাতন ক্যাম্প স্থাপন করে বিভিন্নভাবে স্থানীয় লোকজনের ওপর নির্যাতন চালান। মীর কাসেমের বিরুদ্ধে যে ১৪টি অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। তার মধ্যে আটক, নির্যাতন, হত্যা ও হত্যার পর কর্ণফুলী নদীতে লাশ ভাসিয়ে দেয়ার মতো ১২টি অভিযোগ তারা প্রমাণ করতে পেরেছে বলে দাবি রাষ্ট্রপক্ষ।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি তুরিন আফরোজ বলেন, ‘নির্যাতনের যে ভয়াবহ চিত্র ফুটে উঠেছে তা থেকে আমরা সন্দেহাতীতভাবে তার বিরুদ্ধে আনা ১২টি অভিযোগ প্রমাণ করতে পেরেছি। তাই আমরা মীর কাসেম আলীর সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রার্থনা করেছি।’  তবে শুনানি শেষে আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম বলেছিলেন, ‘প্রসিকিউশন যে সব ডকুমেন্ট দাখিল করেছেন সেখান থেকেই প্রমাণ হয় সেগুলো একটিও তার বিরুদ্ধে টিকে না। যেসব অপরাধের কথা বলা হচ্ছে সেগুলো ৬ নভেম্বর ১৯৭১ সালের ঘটনা। যে সময় মীর কাসেম আলী ঢাকাতে ছিলেন।’

এদিকে মীর কাসেম আলী জামায়াতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বেশ কয়েকটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন। ইবনে সিনা ট্রাস্টি বোর্ডেরও একজন সদস্য তিনি। এছাড়া ইসলামী ব্যাংকের সাবেক পরিচালক ছিলেন জামায়াতের এই নেতা।  জামায়াতের নির্বাহী পরিষদের সদস্য মীর কাসেম আলীকে গত বছর ১৭ জুন গ্রেফতার করা হয়। এরপর ট্রাইব্যুনালের নির্দেশে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।  বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ মামলার কার্যক্রম সমাপ্ত ঘোষণা করে রায় অপেক্ষমান রাখেন। মামলাটি প্রথমে ট্রাইব্যুনাল-১-এ ছিল। পরে তা ট্রাইব্যুনাল-২-এ স্থানান্তর করা হয়।

উল্লেখ্য, দলের আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডের রায় দেয়ায় দুই দফায় ৭২ ঘণ্টার হরতাল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। বৃহস্পতিবার চলছে প্রথম দফার হরতাল। আর রোববার ও সোমবার দেশব্যাপী দ্বিতীয় দফা হরতাল পালন করবে দলটি। আর সেই হরতালের দিনেই দলের আরেক নেতার মামলার রায় দেবেন ট্রাইব্যুনাল।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *