Health-benefits-of-pumpkin

মিষ্টি কুমড়ার স্বাস্থ্য উপকারিতা

সবজি হিসেবে মিষ্টি কুমড়ার মিষ্টতা আমরা সবাই জানি। মিষ্টি কুমড়া অনন্য ভর্তা, ভাজি আর ঝোলে। খুব সহজেই চাষযোগ্য এই সবজির ডাটা-পাতা শাক হিসেবেও খাওয়া যায়। প্রচুর পুষ্টি সমৃদ্ধ মিষ্টি কুমড়া সবজির মধ্যে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন।

জেনে নিন মিষ্টি কুমড়ার স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে।

১. প্রতি ১০০ গ্রাম মিষ্টি কুমড়ায় আছে প্রায় সাত হাজার মিলিগ্রামের মতো ভিটামিন এ। পর্যাপ্ত পরিমাণে মিষ্টি খেলে চোখ ভালো রাখা সম্ভব। এই কুমড়ায় থাকা জিটা জ্যানথিন বয়সজনিত রেটিনার ক্ষয় পর্যন্ত রোধে সাহায্য করে।

২. মিষ্টি কুমড়া খুবই কম ক্যালরিযুক্ত সবজি, এতে কোলেস্টেরল বা সম্পৃক্ত চর্বি নেই বললেই চলে।

৩. মিষ্টি কুমড়ায় প্রচুর পরিমানে ফাইবার বা আঁশ আছে। সহজে হজম যোগ্য সবজিটি বেশি খেলেও ওজন বাড়ার আশঙ্কা নেই।

৪. মিষ্টি কুমড়ায় বিটা ক্যারোটিন আছে, যা দেহের ভেতর গিয়ে ভিটামিন এ হিসেবে পরিণত হয়।

৫. মিষ্টি কুমড়ায় পাওয়া যায় ভিটামিন বি কমপ্লেক্স, কপার, পটাশিয়াম ও ক্যালসিয়াম। দেহের সুস্থতার জন্য এর সবকটিই খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

৬. মিষ্টি কুমড়া ডায়াবেটিক নিয়ন্ত্রণে রোগীদের জন্য খুবই উপকারী। তাই আপনার সবজির তালিকায় মিষ্টি কুমড়া রাখতে পারেন নির্দ্বিধায়।

৭. মিষ্টি কুমড়াতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে জিংক ও আলফা হাইড্রোক্সাইড। জিংক ইমিউনিটি সিস্টেম ভালো রাখে ও অস্টিওপোরোসিস প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। এছাড়া বয়সের ছাপ প্রতিরোধ করতেও মিষ্টি কুমড়া সাহায্য করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *