ঘটনার দিন অর্থাৎ ২৪ সেপ্টেম্বর মৃতের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ায় ৭১৭। সর্বশেষ ৯৩৪ জনের মৃত্যুর কথা বলেছে সৌদি আরব।
আন্তর্জাতিক

মিনায় নিহত হাজির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২১৭৭

ঘটনার দিন অর্থাৎ ২৪ সেপ্টেম্বর মৃতের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ায় ৭১৭। সর্বশেষ ৯৩৪ জনের মৃত্যুর কথা বলেছে সৌদি আরব।চলতি বছর হজের সময় মিনায় পদদলিত হয়ে কমপক্ষে দুই হাজার ১৭৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদ সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস (এপি) বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রীয় ও আনুষ্ঠানিক ঘোষণার হজে মৃত্যুর তথ্য নিয়ে করা এক প্রতিবেদনে এ দাবি করেছে।

ঘটনার দিন অর্থাৎ ২৪ সেপ্টেম্বর মৃতের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ায় ৭১৭। সর্বশেষ ৯৩৪ জনের মৃত্যুর কথা বলেছে সৌদি আরব।

সৌদি আরবে হজ করতে আসে এমন ১৮০টির বেশি দেশের মধ্যে থেকে ৩০টি দেশের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন ও আনুষ্ঠানিক বক্তব্য থেকে মিনায় পদদলিত হয়ে মৃতের সংখ্যা হিসাব করেছে এপি।

ইরানের দাবি, তাদের ৪৬৫ জন হাজি মারা গেছেন। মালির ২৫৪, নাইজেরিয়ার ১৯৯, ক্যামেরুন ৭৬, নাইজারের ৭২, সেনেগালের ৬১, আইভোরি কোস্ট ও বেনিনের ৫২ জন হাজির মৃত্যু হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট দেশ দাবি করেছে।

হজে মৃত্যু হয়েছে এমন দাবি করা অপর দেশগুলোর মধ্যে আছে, মিসর ১৮২, বাংলাদেশ ১৩৭, ইন্দোনেশিয়া ১২৬, ভারত ১১৬, পাকিস্তান ১০২, ইথিওপিয়া ৪৭, শাদ ৪৩, মরক্কো ৩৬, আলজেরিয়া ৩৩, সুদান ৩০, বুরকিনা ফ্যাসো ২২, তানজানিয়া ২০, সোমলিয়া ১০, কেনিয়া ৮, ঘানা ও তুরস্ক ৭, মিয়ানমার ও লিবিয়া ৬, চীন ৪, আফগানিস্তান ২, জর্ডান ও মালয়েশিয়া ১।

এপির প্রতিবেদনে অনুযায়ী, গত ২৪ সেপ্টেম্বর মক্কার মিনার দুর্ঘটনার পর থেকেই মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলছে। বিভিন্ন দেশের পক্ষ থেকে মৃতদেহ শনাক্তের প্রক্রিয়া চলছে। এখনো কয়েক শ হাজি নিখোঁজ রয়েছেন।

সৌদি বাদশাহ সালমান এবার হজের সময় ক্রেন দুর্ঘটনা ও পরে পদদলিত হয়ে মৃত্যুর ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। চলতি বছর ক্ষমতায় আসার পর এটিই সালমানের আমলের প্রথম হজ।

এর আগে ১৯৯০ সালে হজে পদদলিত হয়ে মৃত্যুর সবচেয়ে বড় ঘটনাটি ঘটে, যেখানে মৃতের সংখ্যা ছিল এক হাজার ৪২৬।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *