মরিসাসের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট আমিনা ফেরদৌস

ভারত মহাসাগরের দ্বীপদেশ মরিশাসের প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন দেশটির ডাকসাইটে জীববিজ্ঞানী আমিনা ফেরদৌস গারিব-ফাকিম।

ভারত মহাসাগরের দ্বীপদেশ মরিশাসের প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন দেশটির ডাকসাইটে জীববিজ্ঞানী আমিনা ফেরদৌস গারিব-ফাকিম।ভারত মহাসাগরের দ্বীপদেশ মরিশাসের প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন দেশটির ডাকসাইটে জীববিজ্ঞানী আমিনা ফেরদৌস গারিব-ফাকিম। দেশটির সংসদ বৃহস্পতিবার তাকে এই পদে নির্বাচিত করে।

গত সপ্তাহে প্রেসিডেন্ট কৈলাস পুরিয়াগ পদত্যাগ করলে এ পদটি শূন্য হয়।

আমিনাকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছিলেন মরিশাসের প্রধানমন্ত্রী স্যার আনেরুড জগনাউথ। সংসদ তা বলিষ্ঠভাবে অনুমোদন দিয়েছে। বিরোধী দলও তার মনোনয়ন সমর্থন করেছে।

আমিনাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে সংসদের স্পিকার হানুমানজি মায়া বলেছেন, ‘মরিসাসের ইতিহাসে এটাই প্রথম ঘটনা যে, এই পদে (প্রেসিডেন্ট) আসীন হলেন কোনো নারী।’

এদিকে প্রধানমন্ত্রী জগনাউথ বলেছেন, ঐতিহাসিক এই পরিবর্তনের অংশ হতে পেরে তিনি খুব গর্বিত। তিনি বলেন, আমিনা এই পদটির জন্য যথার্থই যোগ্য।

শুক্রবার মরিসাসের ৬ষ্ঠ প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন ৫৬ বছর বয়সী আমিনা ফেরদৌস গারিব-ফাকিম।

১৯৬৮ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভ করে মরিশাস।

দেশটি আফ্রিকার অন্যতম ধনী এবং সবচেয়ে কম দুর্নীতিগ্রস্ত।

১৩ লাখ জনসংখ্যার মধ্য আয়ের দেশটির মাথাপিছু আয় ৯০০০ মার্কিন ডলার।

মরিশাসের জনসংখ্যার ৪৭ শতাংশ হিন্দু ধর্মাবলম্বী। এখানে মুসলমানের সংখ্যা প্রায় ১৮ ভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *