world-friendship-day

বিশ্ব বন্ধু দিবস আজ

প্রতিবছর আগস্ট মাসের প্রথম রোববার আন্তর্জাতিকভাবে বন্ধু দিবস পালিত হয়। এই দিনে মানুষ বন্ধুদের সঙ্গে অন্তরঙ্গ সময় কাটায়। পরস্পরকে ফুল, কার্ড, হাতের ব্যান্ড প্রভৃতি উপহার দেওয়া বন্ধু দিবসের রীতি। বন্ধুত্বের ইতিহাস প্রায় মানব সভ্যতারই সমান বয়সী। যুগ-যুগ ধরে চলে আসা এই অপূর্ব সম্পর্কটিকে আনুষ্ঠানিক রূপ দেওয়ার জন্যই মূলত বন্ধু দিবসের জন্ম।
‘বন্ধু তোমার পথের সাথীকে চিনে নিও/মনের মাঝেতে চিরদিন তাকে দেখে নিও’ কিংবা ‘ও বন্ধু তোকে মনে পড়ছে’ হৃদয়ের গহিন থেকে উৎসারিত গভীর আবেগে আবিষ্ট করা এমনই হাজারও গান বা কবিতার ছত্র কেবল বন্ধুকে নিয়ে গুঞ্জরিত হতে পারে। বন্ধুত্বের সম্পর্ক শুধুই আবেগের। এ আবেগ কেবলই ভালোবাসার। আবার বিরহেরও। আবহমান বাংলায় বন্ধুকে নিয়ে ভাব আর ভালোবাসা প্রকাশ ও বিনিময়ে শুধুই গান নয়; কবিতা, নাটক, সিনেমা এবং বাঙালির ঘটনাবহুল প্রাত্যহিক জীবনেও তো রয়েছে কত উপাখ্যান!

হৃদয় নাচানো স্পর্শহীন ও বিমূর্ত সম্পর্ক আর বিনিসুতি বন্ধনের নাম বন্ধু। বন্ধুকে অতি বন্ধুবৎসলরা ‘দোস্ত’ বলেও আখ্যায়িত করে থাকেন। দোস্তের সঙ্গে হৃদয়ের কত সুখ-দুঃখের কথা হয় অনায়াসে। ইথারে। হয়তো অনেক সময় এ দোস্ত অনেক দূরে চলে যেতে পারেন। কিন্তু তাই বলে কি বন্ধুত্বও দূরে চলে যায়! না, তখন কথা হয় ইথারে হৃদয় থেকে হৃদয়ে। হৃদয়ের কথা বলিতে ব্যাকুল যার সঙ্গে সেইতো প্রিয় বন্ধু। আজ সেই বন্ধুকে উৎসর্গিত করা একটি দিন, ‘বিশ্ব বন্ধু দিবস’। সারা পৃথিবীর বন্ধু পাগলরা আগস্টের প্রথম রোববারটিকে যেন শুধুই বন্ধুর জন্য বিশেষভাবে বরাদ্দ করে রেখেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *