জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির অধ্যাপক গোলাম আযমের নামাজে জানাজা ঘিরে বায়তুল মোকাররম মসজিদসহ রাজধানীতে নেয়া হয়েছে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।
জাতীয়

বায়তুল মোকাররমে কড়া নিরাপত্তা, ককটেল বিস্ফোরণ

জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির অধ্যাপক গোলাম আযমের নামাজে জানাজা ঘিরে বায়তুল মোকাররম মসজিদসহ রাজধানীতে নেয়া হয়েছে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির অধ্যাপক গোলাম আযমের নামাজে জানাজা ঘিরে বায়তুল মোকাররম মসজিদসহ রাজধানীতে নেয়া হয়েছে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

শনিবার সকাল থেকে পুলিশের পাশপাশি র‌্যাব ও গোয়েন্দা সংস্থার বিপুলসংখ্যক সদস্যকে মাঠে রাখা হয়েছে। যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ।

বাদ জোহর মসজিদ বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে অধ্যাপক গোলাম আযমের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। নামাজে জানাজার মূল কেন্দ্রস্থল বায়তুল মোকাররম মসজিদসহ পুরো এলাকা ইতিমধ্যে ঘিরে রেখেছে পুলিশ ও র‌্যাব। বিভিন্ন উঁচু ভবনের ছাদে অবস্থান নিয়েছে পুলিশের রুফ টপ পার্টি। মোতায়েন করা হয়েছে বিপুলসংখ্যক গোয়েন্দা সংস্থার সদস্য।

এ ছাড়াও  জলকামান, এপিসি, সাজোয়া যান, বুলেট প্রুফ গাড়িসহ অন্যান্য সরঞ্জাম গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে নিয়ে রাখা হয়েছে।

জানা যায়, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের বিপরীতে পল্টনে জামায়াতে ইসলামীর অফিসসহ আশপাশের এলাকা, শাহজাহানপুর মোড় থেকে শাহজাহানপুর রেলগেট, পুরানা পল্টন ও দৈনিক বাংলার মোড় এলাকায় থাকছে পুরো নজরদারিতে।

এদিকে, বায়তুল মোকাররমের সামনে পরপর ৬টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটেছে।  কিছুক্ষণের মধ্যে বায়তুল মোকাররমে মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির গোলাম আযমের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

তবে পল্টন এলাকায় পুলিশের ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যেই শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, হঠাৎ করেই বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটের ওভারব্রিজের পাশে বিকট শব্দে দু’টি ককটেল বিস্ফোরিত হয়। এর পর জাতীয় ক্রীড়া ভবনের সামনে আরো চারটি ককটেল বিস্ফোরিত হয়।

এরপর থেকে পল্টন-দৈনিক বাংলা সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে দৈনিক বাংলামোড় থেকে একটি অবিস্ফোরিত ককটেল উদ্ধার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে মতিঝিল জোনের এডিসি সাইফুল ইসলাম  বলেন, ‘আমরা সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছি। কারা ককটেল ফাটিয়েছে এ মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না।’

আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থার অবন্নতি হবে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা এমন আশঙ্কা করছি না।’

এদিকে জানাজা উপলক্ষে সকাল ৮টা থেকেই সাজোয়া যানসহ পুলিশ অবস্থান নিয়েছে মসজিদের সামনে, উত্তর ও পশ্চিম গেটে। নিরাপত্তার স্বার্থে বায়তুল মোকাররমের আশেপাশে বসানো ভাসমান দোকানপাট সরিয়ে দেয়া হচ্ছে। জানাজার পর আবার এসব দোকানপাট বসতে দেয়া হবে বলে জানা গেছে।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *