নাসিরের গোলে ফাইনালে বাংলাদেশ

থাইল্যান্ডকে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ ফুটবলের ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

থাইল্যান্ডকে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ ফুটবলের ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।থাইল্যান্ডকে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ ফুটবলের ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

প্রথমার্ধে নাসির চৌধুরী যে গোল করেছিলেন সেই গোলেই ভর করে শুক্রবারের সেমিফাইনালে থাইদের ১-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে মামুনুলবাহিনী। সঙ্গে প্রথমবারের মতো বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ ফুটবলের আসরে ফাইনালিস্ট হিসেবে নাম লিখিয়েছে বাংলাদেশ।

বাইরে প্রাণের উন্মাদনা, ভিতরে হাজারও দর্শক। মুহুর্মুহু চিৎকারে কেঁপে ওঠছে পুরো স্টেডিয়াম। বাংলাদেশ দলের একের পর এক আক্রমণে তা যেন আরো কয়েকগুণ বেড়ে যাচ্ছিল। আক্রমণাত্মক কৌশলেই খেলার ঘোষণা দিয়েছিলেন বাংলাদেশ দলপতি মামুনুল ইসলাম। শুরু থেকেই মামুনুলবাহিনীর শরীরী ভাষা ছিল তেমনই। যার ফল হিসেবে প্রথমার্ধের শেষ দিকে এসে নাসিরের গোলে থাইল্যান্ডের বিপক্ষে এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ।

মিশন ফাইনালের টিকেট হাতে পাওয়া; সেই মিশনে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে লড়াই করেছে বাংলাদেশ ও থাইল্যান্ড ফুটবল দল। বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ ফুটবলে এই দুই দলের প্রতীক্ষিত সেমিফাইনাল ম্যাচটি শুরু হয়েছিল শুক্রবার বিকাল ৫টায়।

গ্রুপপর্বের দুটি ম্যাচে প্রতিপক্ষের ওপর চাপ রেখে খেলতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। সেমিফাইনালেও শুরুটা সেভাবেই হয়। খেলার ৫ম মিনিটেই দারুণ একটা সুযোগ পেয়েছিলেন নাসিরউদ্দিন। কিন্তু বা প্রান্ত থেকে তার শট পোস্টে পৌছার আগেই গোল লাইন অতিক্রম করে।

এক মিনিটের ব্যবধানে মামুনুল ইসলামের দুর্বল শটে বল চলে যায় থাই গোলরক্ষক ইয়স সম্পর্নের হাতে। খেলার ১০ মিনিটে থাইল্যান্ডের গোলপোস্টেও সামনে কিছু জটলা তৈরি হয়। যেখানো বল ধরতে গিয়ে আঘাত পান দলটির অধিনায়ক। রেফারির সিদ্ধান্তের আগেই বল জালে প্রবেশ করলেও গোল দেননি।

এর পরপরই থ্রো থেকে পাওয়া বলে গোওে সুযোগ মিস করেন এমিলি। খেলার ২০ মিনিটে সোহেল রানার কাছ থেকে জাহিদ বল পান। বা প্রান্ত থেকে সেই বল হেমন্তকে দিলেও তিনি ধরতে নিয়ন্ত্রণে নিতে পারেননি। অবশ্য দুই-একবার পাল্টা আক্রমণেও যাওয়ার চেষ্টা করেছে থাইল্যান্ড। কিন্তু সেসব প্রচেষ্টা সফল হয়নি।

বাংলাদেশ গোলের দেখা পায় খেলার ৪০ মিনিটে। এ সময় সাপিয়ানা তানাকোন কর্নারের বিনিময়ে একটি গোল হতে দলকে রক্ষা করেন। তবে সেই কর্নার থেকেই মামুনুলের কিক থেকে ডিফেন্ডার নাসির উদ্দিন শূন্যে থাকা বলে পা লাগিয়ে থাইল্যান্ডের জাল ভেদ করাতে সক্ষম হন। প্রথমার্ধে এরপরও দুদলই একাধিক আকমণ করে। তবে সেগুলো নিশানা খোঁজে পায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *