একজন বৃদ্ধ পিতা যিনি বাংলাদেশের অন্যতম মেধাবী একজন পার্লামেন্টারিয়ান তাকে নিয়তির নিষ্ঠুর পরিণতিতে আমৃত্যু পুত্রশোক বয়ে নিয়ে যেতে হবে।
মতামত

মন্ত্রীদের এক সন্তান নীতি ও প্রিয়জন হারানোর দুঃখ

একজন বৃদ্ধ পিতা যিনি বাংলাদেশের অন্যতম মেধাবী একজন পার্লামেন্টারিয়ান তাকে নিয়তির নিষ্ঠুর পরিণতিতে আমৃত্যু পুত্রশোক বয়ে নিয়ে যেতে হবে।তাহসিন আহমেদ

বাংলাদেশের সফল একজন আইনমন্ত্রী, অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ তাঁর একমাত্র সন্তানকে হারিয়েছেন গতকাল। এতো সফল একজন মানুষ যিনি বাংলাদেশে প্রতিটি ক্ষমতাশীন সরকারের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। বঙ্গবন্ধু সরকার থেকে শুরু করে এরশাদের সামরিক শাসনামলে ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে। বিএনপির আমলে আইনমন্ত্রী।

জীবনের গোধূলি বেলায় উত্তরাধিকার রেখে যেতে পারলেন না ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। ডেঙ্গু জ্বরে দীর্ঘদিন ভুগে অনেকেই সুস্থ হচ্ছে। অথচ একজন যুক্তরাজ্যের নাগরিক আমান মমতাজ মওদুদ ডেঙ্গুর সাথে লড়াইয়ে পারলেন না সুস্থ অবস্থায় ফিরে আসতে। একজন বৃদ্ধ পিতা যিনি বাংলাদেশের অন্যতম মেধাবী একজন পার্লামেন্টারিয়ান তাকে নিয়তির নিষ্ঠুর পরিণতিতে আমৃত্যু পুত্রশোক বয়ে নিয়ে যেতে হবে।

জীবনের গোধূলি বেলায় উত্তরাধিকার রেখে যেতে পারলেন না। ডেঙ্গু জ্বরে দীর্ঘদিন ভুগে অনেকেই সুস্থ হচ্ছে। অথচ একজন যুক্তরাজ্যের নাগরিক আমান মমতাজ মওদুদ ডেঙ্গুর সাথে লড়াইয়ে পারলেন না সুস্থ অবস্থায় ফিরে আসতে। একজন বৃদ্ধ পিতা যিনি বাংলাদেশের অন্যতম মেধাবী একজন পার্লামেন্টারিয়ান তাকে নিয়তির নিষ্ঠুর পরিণতিতে আমৃত্যু পুত্রশোক বয়ে নিয়ে যেতে হবে।

বাংলাদেশের বর্তমান আইনমন্ত্রী আনিসুল হকও ২৪ বছর আগে হারিয়েছেন নববধূ আমাতুল্লা রীনাকে (সম্পর্কে ওনার চাচাতো বোন, বিয়ের সাল ১৯৯০ এর শেষদিকে)। ১৯৯১ সালে তেজগাঁওয়ের সাত রাস্তায় সড়ক দুর্ঘটনায় স্ত্রীকে হারানের পর ২৪ বছর একা কাটিয়ে দিয়েছেন। এখনও প্রয়াত স্ত্রীর আত্মার মাগফেরাত কামনায় বনানী কবরস্থানে কবর জিয়ারত করতে যান।

বাংলাদেশের সাবেক ২ অর্থমন্ত্রীও দুর্ঘটনায় ইন্তেকাল করেন। দেশের সবচেয়ে সফল সাবেক অর্থমন্ত্রী ২০০৯ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরন করেন। আরেক সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ কিবরিয়াও ২০০৫ সালে গ্রেনেড সন্ত্রাসের শিকার হয়ে মৃত্যুবরন করেন।

উল্লেখ্য বাংলাদেশের শেষ ৩টি রাজনৈতিক সরকারের অর্থমন্ত্রী সিলেটের অধিবাসী।

মৃত মানুষকে খুব বেশিদিন কেউ মনে রাখে না; প্রিয়জন ছাড়া। মৃত মানুষের স্মৃতি যতটা আপনজন অথবা কাছের মানুষের মধ্যে শূন্যতা তৈরি করে ঠিক তাঁর বিপরীত হয় দূরের মানুষদের বেলায়। মৃত মানুষটি যখন জীবিত ছিল তখন তাঁর থেকে নেয়া আর্থিক অথবা অন্য কোন নিঃস্বার্থ অবদানও অনেকে ভুলে যায়। শুধু প্রিয়জনের বেলায় ব্যতিক্রম। হঠাৎ করে হারিয়ে যাওয়া অন্য ভুবনের বাসিন্দাদের স্মরণ করে মনে করে আপনজন বা প্রিয়জনরা মনে করিয়ে দেয় দূরে যাওয়া মানে হারিয়ে যাওয়া নয়। মৃত মানুষের স্মৃতি হটাত মনে করিয়ে দেয় লেবাননের কবি কাহলিল জিবরানের দি প্রফেট (The Prophet) কবিতার সেই এপিটাফ I am alive like you, and I am standing beside you. Close your eyes and look around, you will see me in front of you.

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *