খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে প্রাপ্তিশূন্য তল্লাশি
জাতীয়

খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে প্রাপ্তিশূন্য তল্লাশি

খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে প্রাপ্তিশূন্য তল্লাশিবিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে তল্লাশি চালালেও কিছুই উদ্ধার করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। খালি হাতেই তাঁরা ফিরে গেছেন।

শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিক থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সাবেক প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়। সকাল ৮টার দিকে তাঁরা কার্যালয়ের ভিতরে প্রবেশ করে তল্লাশি শুরু করে। দেড় ঘণ্টারও বেশি সময় তল্লাশি করে সকাল পৌনে ১০টার দিকে কার্যালয় ছেড়ে চলে যায় গুলশান থানার পুলিশ।

অভিযান চলাকালে সেখানে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) উপকমিশনার (ডিসি) মোশতাক আহমেদ, গোয়েন্দা পুলিশের ঢাকা উত্তরের ডিসি নাজমুল আহসানসহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকলেও তল্লাশি শেষে তাঁরা গণমাধ্যমের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি।

তল্লাশির খবর পেয়ে সকাল পৌনে ৯টার দিকে গুলশানের কার্যালয়ে যান দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ও যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেল।

অভিযান শেষে সেখানে রুহুল কবির রিজভী গণমাধ্যমকে এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এটা সরকারের জঘন্য মনোবৃত্তি। বিএনপির চেয়ারপারসনকে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত করতে এবং তাঁর মর্যাদাহানি করার জন্যই এই তল্লাশি চালানো হয়েছে। এটা গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ।

‘পুলিশ যাওয়ার সময় আমাদের কাছে লিখিত দিয়ে গেছে শূন্য প্রাপ্তি’, যোগ করেন রিজভী। তিনি আরো বলেন, সুতরাং তাঁরা জানেই এখানে কিচ্ছু নেই।

দলের যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেল বলেন, কার্যালয়ের কলাপসিবল গেটে তালা ছিল, সেই তালা ভেঙে তাঁরা ভিতরে প্রবেশ করেছে। ভেঙে বিভিন্ন কক্ষেও ঢুকেছে। যদিও তাঁরা কিছুই পায়নি।

কার্যালয়ে দায়িত্ব পালনকারী এক কর্মচারী জানান, কলাপসিবল গেটের তালা ভেঙে তাঁরা (পুলিশ) নিয়ে গেছেন। উপরে উঠার সময় তালা ভেঙেছে। কেউ যাতে কিছু দেখতে না পারে এজন্য সিসি ক্যামেরা ঘুরিয়ে দেয়।

অভিযানের ব্যাপারে গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক বার্তা সংস্থা ইউএনবিকে জানিয়েছেন, আদালতে নির্দেশে তাঁরা এ তল্লাশি চালিয়েছেন।

তবে সকালে বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল কবীর খান বলেছিলেন, ‘সাধারণত কার্যালয়ের সামনে পুলিশ থাকে না। এলাকার নিরাপত্তার জন্য রাস্তায় কিছু পুলিশ থাকে। আজ সকাল থেকে গুলশান থানার অতিরিক্ত পুলিশ কার্যালয়ের বাইরে অবস্থান নেয় এবং কার্যালয়টি ঘিরে ফেলে।

পরে বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের কর্মকর্তা শামসুদ্দীন দিদার জানান, এতক্ষণ পুলিশ কার্যালয়ের বাইরে অবস্থান করলেও এখন তারা ভিতরে প্রবেশ করেছে এবং তল্লাশি চালাচ্ছে।

তল্লাশি প্রতিবাদে কাল দেশব্যাপী বিক্ষোভ
বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে তল্লাশির প্রতিবাদে আগামীকাল রোববার সারা দেশে বিক্ষোভ করবে যুবদল। শনিবার সকালে সাবেক প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ‘আদালতের নির্দেশে’ অভিযান চালায় গুলশান থানার পুলিশ। এর পরই বিক্ষোভের কর্মসূচি দেয় যুবদল।

যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মোর্ত্তাজুল করিম বাদরু বলেন, ‘বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে তল্লাশির প্রতিবাদে আগামীকাল রোববার ঢাকাসহ সারা দেশে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল হবে।’ তবে বিক্ষোভের সময় বলতে চাননি যুবদলের এই নেতা।

পুলিশের তল্লাশির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে পুলিশের তল্লাশি অভিযানের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশনের সভাপতি এডভোকেট জয়নুল আবেদীন।

শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে গুলশান কার্যালয়েগিয়ে তিনি এ কথা জানান। জয়নুল আবেদীন বলেন, পুলিশ অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে এ তল্লাশি চালিয়েছে। পুলিশের এ তল্লাশির বিরুদ্ধে আমরা আইনি ব্যবস্থা নেবো।

এসময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়সহ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা উপস্থিত ছিলেন।

গণতন্ত্রকে ধ্বংস করতেই সরকার বিএনপির তল্লাশি চালিয়েছে

বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করতেই সরকার বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে তল্লাশি চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে দ্রুতই আমরা প্রেস মিট করবো। তবে এই ঘটনা সম্পর্কে বলা যায় যে, এ সরকার কোনোভাবেই গণতন্ত্রকে রক্ষা করবে না। কোনও কারণ ছাড়াই খালেদা জিয়ার অফিসে পুলিশের তল্লাশি গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার অপচেষ্টা।’

গুলশানের ওই কার্যালয়ের সামনে থেকে বেসরকারি টেলিভিশনের একজন সাংবাদিক জানান, শনিবার সকাল ৭.২০ মিনিট থেকে পুলিশ তল্লাশি শুরু করে। এসময় ৮৬ নম্বর সড়কে প্রবেশে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়।

বিক্ষোভ করেছে মহিলা দল
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে পুলিশের তল্লাশির প্রতিবাদে গুলশানে বিক্ষোভ করেছে বিএনপির নারী বিষয়ক সংগঠন মহিলা দল। সংগঠনের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের নেতৃত্বে নেতা-কর্মীরা কার্যালয়ের সামনের সড়কে অবস্থান নিয়ে নানা স্লোগান দিতে থাকেন। এ সময় সড়কটিকে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে পুলিশ আসলে আফরোজা আব্বাস নেতা-কর্মীদের সরিয়ে দেন।

শনিবার সকালে খালেদার গুলশান কার্যালয়ে তল্লাশির খবর পেয়ে বিএনপির বিভিন্ন স্তরের নেতা-কর্মীরা গুলশান ২ এর ৬৮ নম্বর সড়কের বাড়িটির দিকে যান। এদের মধ্যে ছিলেন মহিলা দলের জনা বিশেষ কর্মীও।

সকাল সাড়ে সাতটা থেকে সাড়ে নয়টা পর্যন্ত পুলিশের তল্লাশি চলে। সেখানে রাষ্ট্রবিরোধী নথিপত্র থাকতে পারে-এমন সন্দেহে চালানো এই অভিযানে অবশ্য সন্দেহজনক কিছুই পাওয়া যায়নি। পুলিশ ঘটনাস্থল ছাড়ার পর বিএনপির নেতারা গণমাধ্যমের কাছে প্রতিক্রিয়া জানান।

বেলা ১১টার পর সেখানে অবস্থান করা মহিলা দলের কর্মীরা সরকারের বিরুদ্ধে নানা স্লোগান দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে তারা ৬৮ নম্বর সড়কে বসে পড়েন। এই সড়কটি ধরে চলার চেষ্টা করা গাড়িগুলোকেও তারা আটকে দেন। এক পর্যায়ে সড়কের দুই ধারেই গাড়ির জটলা তৈরি হয়। এ সময় মহিলা দলের কর্মীদের পাশাপাশি অবস্থান নেন বিএনপির কয়েকজন পুরুষ কর্মীও।

১৫ মি‌নিট পর পু‌লি‌শের এক‌টি টহল গা‌ড়ি ঘটনাস্থলে আসে। এই গাড়ি দেখে আফরোজা আব্বাস তার নেতা-কর্মীদেরকে নিয়ে সড়কের দখল ছেড়ে দিয়ে খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন। সেখানে জড়ো হয়ে তারা একটি মিছিলও বের করেন। সংক্ষিপ্ত এই মিছিলের পর তারা সবাই এলাকা ছেড়ে চলে যান।

আফরোজা আব্বাস গণমাধ্যমকর্মীদেরকে বলেন, ‘আজ আমাদের কোনো গণ স্বা‌ধীনতা নেই, যখন তখন আমা‌দের কার্যাল‌য়ে অভিযান চালানো হয়। আজ‌কের ঘটনায় আমা‌দের‌কে আগে থেকে থে‌কে কিছু জানা‌নো হয়নি।’

এদিকে খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে তল্লাশির প্রতিবাদে রোববার সারাদেশে বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে বিএনপির যুব বিষয়ক সংগঠন যুবদল।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতারাও এই তল্লাশির নিন্দা জানিয়েছেন। তল্লাশির নামে পুলিশ কার্যালয়ের ভেতর কোনো বিস্ফোরক দ্রব্য রেখে এসেছে কি না সে বিষয়ে দুশ্চিন্তার কথাও বলেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এই ঘটনার বিচারবিভাগীয় তদন্ত চেয়েছেন।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *