পাকিস্তানে হাসপাতালে বোমা হামলায় নিহত ৭০

পাকিস্তানে হাসপাতালে বোমা হামলায় নিহত ৪২

পাকিস্তানে হাসপাতালে বোমা হামলায় নিহত ৪২পাকিস্তানের কোয়েটায় একটি বেসামরিক হাসপাতালে বোমা হামলায় ৭০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩৫ জন। সোমবার সকালে কোয়েটা সিভিল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

এর আগে সোমবার সকালে দুর্বৃত্তদের গুলিতে বেলুচিস্তান বার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি বেলাল আনোয়ান কাসি নিহত হন।

বেলাললের মরদেহ হাসপাতালে নেয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই এই বিস্ফোরণ ঘটে। এ বিস্ফোরণে কয়েকজন আইনজীবী আহত হওয়ারও খবর পাওয়া যাচ্ছে।

বিস্ফোরণের হাসপাতালটি ঘিরে রেখেছে পুলিশ। বিস্ফোরণের পর কোয়েটার হাসপাতালগুলোতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে।

পাকিস্তানের টেলিভিশনের প্রতিবেদনে বলা হয়, বোমা বিস্ফোরণের পরপরই হাসপাতালে বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। শাহজাদ খান নামের আজ টিভির এক ক্যামেরাম্যান বিস্ফোরণে নিহত হয়েছেন। বিস্ফোরণে ডনের ফটোসাংবাদিকও গুরুতর আহত হয়েছেন।

হাসপাতালে বোমা হামলায় দায় এখনো কেউ স্বীকার করেনি।

ঘটনার পরপরই পুলিশ হাসপাতালসহ পুরো এলাকা ঘিরে ফেলে। কোয়েটার সব হাসপাতালে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। বোমা বিস্ফোরণে আহত অনেককে বিভিন্ন হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নাওয়াজ শরিফ কোয়েটার হাসপাতালে হামলার নিন্দা জানিয়ে বলেন, বেলুচিস্তান প্রদেশের কাউকে শান্তি বিঘ্নিত করতে দেওয়া হবে না।

উল্লেখ্য, আল কায়েদার শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত বেলুচিস্তানে প্রায় সময়ই ছোট বড় সংঘাতের ঘটনা ঘটে থাকে। জায়গাটি ঘিরে রয়েছে আফগানিস্তান ও ইরান সীমান্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *