পাকিস্তানে ২০ দফা বিমান হামলায় নিহত ৫৭

সামরিক বাহিনী খায়বার এজেন্সির তিরাহ উপত্যকায় অন্তত ২০ দফা বিমান হামলা চালিয়েছে। এতে কমপক্ষে ৫৭ জন সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে।

সামরিক বাহিনী খায়বার এজেন্সির তিরাহ উপত্যকায় অন্তত ২০ দফা বিমান হামলা চালিয়েছে। এতে কমপক্ষে ৫৭ জন সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে।পেশোয়ারের আর্মি পাবলিক স্কুলে তেহরিকে তালেবান পাকিস্তান’র বর্বর হামলার প্রতিশোধ নিতে শুরু করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। স্থানীয় সময় রাত সোয়া ১০টার দিকে সামরিক বাহিনী খায়বার এজেন্সির তিরাহ উপত্যকায় অন্তত ২০ দফা বিমান হামলা চালিয়েছে। এতে কমপক্ষে ৫৭ জন সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে।

স্কুলে তালেবানদের হামলায় অন্তত ১৩২ জন শিক্ষার্থীসহ ১৪৪ জন নিহত হওয়ার পর সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরীফ পাল্টা ব্যবস্তা নেয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছিলেন। তারপর এই হামলা শুরু হলো।
পাকিস্তান আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর বা আইএসপিআর’র মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আসিম বাজওয়া এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ দলের প্রধান ইমরান খান তার দীর্ঘদিনের বিক্ষোভ কর্মসূচি ও রাজনৈতিক আন্দোলনের অবসান ঘোষণা করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ। তিনি বলেছেন, ইমরানের এ সিদ্ধান্ত পাকিস্তানে সন্ত্রাসবাদ-বিরোধী লড়াইকে জোরদার করতে সহায়তা করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *