রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হামলা চালিয়েছে ছাত্রদলের পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা
জাতীয়

বিএনপি কার্যালয়ে ছাত্রদলের পদবঞ্চিতদের হামলা

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হামলা চালিয়েছে ছাত্রদলের পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরারাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হামলা চালিয়েছে ছাত্রদলের পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা। এসময় ককটেল ফাটিয়ে ও লাঠিশোটা নিয়ে কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করে তারা। ককটেল হামলায় অন্তত ৭ জন কর্মী আহত হয়েছে । আহতদের কার্যালয়ের ভেতরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বর্তমানে ওই এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। রবিবার দুপুর দুইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
রবিবার দুপুরে নবগঠিত কমিটির সভাপতি রাজিব আহসান ও সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসানের নেতৃত্বে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা বিএনপি কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় নতুন কমিটির অনুমোদন দেওয়ায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়ে মিছিল বের করা হয়। মিছিল শেষে তারা সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন।
সমাবেশে নেতারা নবগঠিত কমিটির নেতারা আগামী দিনে সরকারবিরোধী আন্দোলনকে জোরদার করার জন্য ছাত্রদল নেতাকর্মীদেরকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজপথে থাকার আহ্বান জানান।
অন্যদিকে ছাত্রদলের নবগঠিত কমিটির নেতৃত্বের বিরুদ্ধে আনিসুর রহমান খোকনের নেতৃত্বে ছাত্রদলের একাংশের নেতাকর্মীরা প্রায় একই সময়ে নয়াপল্টনে নয়া কমিটির বিরুদ্ধে অনাস্থা জানিয়ে মিছিল ও সমাবেশ করে।  তারা বর্তমান কমিটি ভেঙ্গে দেয়ার জন্য শীর্ষ নেতৃত্বের প্রতি আহবান জানান। নেতাকর্মীরা মিছিল থেকে বিএনপির ছাত্র বিষয়ক ও সহ-ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি ও সুলতান সালাহউদ্দিন টুকুর বিরুদ্ধে স্লোগান দেয়।
এমন পরিস্থিতিতে দুপুর দুইটার দিকে পল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে পর পর দুইটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। পদবঞ্চিত অংশের নেতাকর্মীরা লাঠি শোটা নিয়ে সামনের রাস্তায় অবস্থান নেয়। এসময় বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মূল ফটক বন্ধ করে দেওয়া হয়।
এ সময় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, ঢাকা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, বিগত কমিটির সভাপতি আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অবস্থান করছেন।
ছাত্রদলের কমিটি গঠন নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই বিক্ষোভ করে আসছিল ছাত্রদলের পদবঞ্চিত নেতারা। সবশেষ গত শনিবার তারা কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অবস্থান নিয়ে অনির্দিষ্টকাল পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি ঘোষণা করে। অন্যদিকে রবিবার সকাল থেকেই কার্যালয়ের ভেতর ও বাইরে অবস্থান নেয় বর্তমান কমিটির নেতাকর্মীরা। এতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষের আশংকা করা হচ্ছিল সকাল থেকেই। তবে দুপুর পর্যন্ত বিদ্রোহী গ্রুপ কার্যালয়ে না আসায় তেমন কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।  দুপুর একটার দিকে বদবঞ্চিত অংশের নেতারা কার্যালয় এলাকায় আসলে উভয় গ্রুপ কমিটর পক্ষে বিপক্ষে মিছিল স্লোগান দিতে থাকলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠে।
প্রসঙ্গত, গত ১৪ অক্টোবর রাজিব আহসানকে সভাপতি ও আকরামুল হাসানকে সাধারণ সম্পাদক করে ছাত্রদলের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *