নিজেকে সুস্থ রাখতে যা করবেন

নিজেকে সুস্থ রাখতে যা করবেন

21
0
SHARE

নিজেকে সুস্থ রাখতে যা করবেনখাওয়া ঘুম চলছে ঠিকমতো, কিন্তু শরীরে ভর করেছে রাজ্যের ক্লান্তি। শরীরের সঙ্গে বিশ্রাম চাইছে আপনার মাথা। সারাক্ষণ শুধু ঘুম ঘুম ভাব লেগে থাকে। কাজের প্রতি বেড়ে যাওয়া অনীহা আপনার কর্মক্ষেত্রে প্রশংসা নষ্ট করে দিচ্ছে। এদিকে আপনার দৈহিক ওজন আছে আগের মতোই, কখনো আবার বেড়ে চলেছে। আবার কখনো ওজন কমে যেতে দেখা যায়। এইসময় নিজেকে সুস্থ রাখতে দরকার ঠিকমতো খাদ্য গ্রহণ করা।

নিজেকে সুস্থ রাখতে যা করবেন জেনে নিন।

সকালে ঘুম থেকে ওঠা
সকাল ৭ টা থেকে ৮ টার মধ্যে বিছানা ছাড়ার অভ্যাস করতে হবে। বেশি সময় বিছানায় থাকাটাও শারীরিক দুর্বলতার কারণ। দীর্ঘসময় বিছানায় থাকলে পেটের খাবার হজম হয়ে যায় অনেক আগেই। খাবারের অভাবে দেহ দুর্বল হতে থাকে।

বিশ্রাম নিয়ে কাজ
কাজের ফাঁকে কিছুটা সময় বিশ্রাম নেয়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। অন্তত প্রতি দুই ঘণ্টা পর পাঁচ মিনিট করে হাঁটতে পারেন। এতে দেহের কোষগুলোকে তরতাজা করে তোলে। কাজের মাধ্যমে হারিয়ে যাওয়া শক্তি আবারো ফিরে আসে। আমাদের শারীরিক দুর্বলতাও কেটে যায়।

পর্যাপ্ত পানি পান
আমাদের দেহ পানিশূন্য হলে শারীরিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়ি। তাই সুস্থ থাকতে প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করা উচিৎ। দেহ হাইড্রাইট থাকলে শারীরিক দুর্বলতার সমস্যা কেটে যায় একেবারে।

ব্যায়াম করুন
সুস্থ থাকতে প্রতিদিন সকালে হালকা ব্যায়াম করতে পারেন। হালকা ব্যায়ামে দেহের সব জায়গায় রক্ত চলাচল ঠিকভাবে বজায় থাকবে। আপনিও ফিরে পাবেন দেহের হারানো শক্তি। সেজন্য প্রতিদিন সকালে নিয়ম করে পনের মিনিট হাঁটতে পারেন।

শক্তিসমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ
যখনই শারীরিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়লে তাৎক্ষণিক ভাবে শক্তিসমৃদ্ধ খাবার খাওয়া উচিৎ। যেমন ডিম সেদ্ধ, কলা, গরম দুধ ইত্যাদি। বাদাম, কমলার রস এবং মিষ্টি জাতীয় খাবার খেলেও উপকার পাবেন। তবে শারীরিকভাবে সুস্থ সবল থাকতে খাবার তালিকায় নিয়মিত পুষ্টিকর খাবার রাখতে হবে।

গরম পানীয় বেশি নয়
চা বা কফির ক্যাফেইন আমাদের শারীরিকভাবে দুর্বল করে তোলে। এধরনের গরম পানীয় তাৎক্ষণিকভাবে দেহে চাঙা ভাব এলেও দেহ পানিশূন্য করে ফেলে। আমাদের দেহে পানির চাহিদা বৃদ্ধি পায় এবং দুর্বলতা বেড়ে যায়। তাই শারীরিক দুর্বলতা দূর করতে চা বা কফি পানের মাত্রা কমিয়ে দিন।

বিনোদন
মনমরা হয়ে থাকলে বা বেশি চিন্তা করলে শারীরিক দুর্বলতা দেখা দেয়। মনের মধ্যে ফুর্তি না থাকলে শরীরের ক্লান্তি বেড়ে চলে। অপরদিকে বিনোদনের সঙ্গে থাকলে আপনি মনে যেমন আনন্দ পাবেন তেমনি ফিরে পাবেন শরীরের শক্তি। তাই অতিরিক্ত চিন্তা না করে পরিবার পরিজনের সঙ্গে থাকুন। গান শুনুন, বা প্রিয় কোনো মুভি দেখে আনন্দের সঙ্গে সময় পার করুন।

পর্যাপ্ত ঘুম
ঘুমের পরিমাণ কম হলে শারীরিক দুর্বলতা দেখা দিতে পারে। কারণ ঘুমের মাধ্যমে আমাদের দেহের ও মস্তিষ্কের কোষ নতুন করে শক্তি অর্জন করে। যখন ঘুম কম হয় তখন মাথা ঘোরানো এবং দুর্বলতা অনুভব করার পরিমাণ বেড়ে যায়। তাই পর্যাপ্ত ঘুম দূর করতে পারবে শারীরিক দুর্বলতা।

Comments

comments