নারী নির্যাতন: জড়িতদের শাস্তি, প্রক্টরের পদত্যাগ দাবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের পদত্যাগ দাবিতে ক্রমেই উত্তাল হয়ে উঠছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। প্রতিদিনই এ দাবিতে হচ্ছে নানা কর্মসূচি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের পদত্যাগ দাবিতে ক্রমেই উত্তাল হয়ে উঠছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। প্রতিদিনই এ দাবিতে হচ্ছে নানা কর্মসূচি।পহেলা বৈশাখে নারী নির্যাতনের ঘটনায় দায়িত্ব পালনে অবহেলা ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের পদত্যাগ দাবিতে ক্রমেই উত্তাল হয়ে উঠছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। প্রতিদিনই এ দাবিতে হচ্ছে নানা কর্মসূচি।

রোববার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্থানে নারী নির্যাতনের ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি ও প্রক্টরের পদত্যাগ দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশে ও কর্মসূচি শেষে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিভিন্ন বাম সংগঠনের নেতাকর্মীরা। সমাবেশে নেতাকর্মীরা দায়িত্ব পালনে কর্তৃপক্ষের অবহেলা ও পুলিশ প্রশাসনের ব্যর্থতাকে দায়ি করেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে বাংলাদেশ ছাত্রফ্রন্টের একাংশের নেতাকর্মীরা। সমাবেশে ছাত্রফ্রন্টের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি রাশেদ শাহরিয়ারসহ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

একই দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসুর সামনে একই দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা। সমাবেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার প্রচার সম্পাদক বেনজির সহ ছাত্র ফেডারেশনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সমাবেশে বক্তারা কর্তব্যে অবহেলাকারী পুলিশ ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল বডির অপসারণের দাবি জানান। সমাবেশে শেষে তারা একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেন। এদিকে একই দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে করে বাংলাদেশ ছাত্র ফ্রন্টের অপর অংশের নেতাকর্মীরা। সমাবেশে ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি জোনার্দণ দত্ত নান্টু, সাধারণ সম্পাদক ইমরান হাবিব রুম্মন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আহ্বায়ক প্রীতিলতাসহ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে পহেলা বৈশাখে নারীর শ্লীলতাহানির ঘটনায় বখাটেদের গ্রেফতারের দাবিতে শাহবাগ থানার সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থীরা। এসময় তারা দোষীদের গ্রেফতার করতে প্রশাসনকে ২৪ ঘন্টার সময় বেঁধে দিয়েছেন। রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা অনুষদের সামনে এক মানববন্ধন শেষে দুপুর পৌনে ২টার দিকে প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী শাহবাগ থানা ঘেরাও করে। মানববন্ধনে চারুকলা অনুষদের ডিনসহ শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এসময় তারা বখাটেদের দ্রুত গ্রেফতার করে শাস্তির আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানান। একই সাথে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকারও তীব্র সমালোচনা করেন তারা।

রোববার দুপুরে মুখে কালো কাপড় বেঁধে পহেলা বৈশাখে নারীর বস্ত্রহরণ এবং যৌন হয়রানির প্রতিবাদ জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা।বিশ্ববিদ্যালয়ের দোয়েল চত্বর এলাকায় তারা এ মৌন মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। মানববন্ধনে টিএসসিতে নির্মম যৌন হয়রানির তীব্র প্রতিবাদ ও দোষীদের শাস্তির দাবি জানান। এসময় যৌন নিপীড়ন বিরোধী এবং দোষীদের শাস্তির দাবিতে স্লোগান সম্বলিত বিভিন্ন প্লেকার্ড প্রদর্শন করা হয়। এ সময় মানববন্ধনে পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক কামরুল হাসান এবং বিভাগের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি ও বিএনপিপন্থি শিক্ষকদের সাদাদল। এঘটনার প্রতিবাদে আগামীকাল সোমবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে মানববন্ধনের ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষক সমিতি।

এ ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি দাবি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের অপসারণ দাবিতে শনিবার বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন তিন দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। একই দাবিতে প্রতিদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন কর্মসূচিতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ প্রতিবাদ ও দোষীদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছে এবং সেই সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দায়িত্ব পালনে গাফলতির অভিযোগও করে এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ করছেন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *