দখল নিতে এসে দৌড়ানি খেলো কথিত ‘আসল বিএনপি’
জাতীয়

দখল নিতে এসে দৌড়ানি খেলো কথিত ‘আসল বিএনপি’

দখল নিতে এসে দৌড়ানি খেলো কথিত ‘আসল বিএনপি’রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় দখল করতে এসে দৌড়ানি খেলো কথিত ‘আসল বিএনপি’র নেতাকর্মীরা। শনিবার বিকাল ৪টায় নয়াপল্টন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রদলের ধাওয়া খেয়ে নয়াপল্টনের কার্যালয় দখল করতে আসা ‘আসল বিএনপির’ নেতাকর্মীরা পিছু হটতে বাধ্য হয়েছে।

এক পর্যায়ে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুড়ে সবাইকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। সংঘর্ষে চারজন আহত হয়েছেন।

‘আসল বিএনপি’র নেতৃত্বে থাকা জনৈক কামরুল ইসলাম নাসিম এর আগে নয়াপল্টনে অবস্থিত বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় দখলে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার বেলা ৪টার দিকে ফকিরাপুল মোড় থেকে মিছিল নিয়ে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আসেন কামরুল হাসান নাসিম। এ সময় তার অনুসারীরা খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয় দখলের হুমকি দেন।

মিছিলটি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এলে সেখানে অবস্থানরত ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা ধাওয়া দেয়। এ সময় বেশ কয়েকজনকে মারধর করে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। ছাত্রদলের কর্মীদের হাতে মার খেয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে আত্মরক্ষা করেন কামরুল হাসান।

পরে তিনি টেলিফোনে সাংবাদিকদের জানান, ছাত্রদলের ক্যাডাররা তার কার্যালয় দখল করে রেখেছে। কার্যালয় দখল করতে গেলে খালেদা জিয়ার ক্যাডাররা তার ওপর হামলা চালায়। এ ব্যাপারে তিনি থানায় মামলা করবেন।

‘সরকারি মদদে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হামলা হয়েছে’

সরকারি মদদে ‘আসল বিএনপি’ নামধারী উচ্ছিষ্ট-পরজীবী ও টোকাইদের দিয়ে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দলের মুখপাত্র রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

এ হামলায় অন্তত ১৫ জন নেতাকর্মী আহত হওয়ার দাবিও করা হয়েছে দলের পক্ষ থেকে।

বিএনপি বলেছে, ‘৫ জানুয়ারির ভোটারবিহীন প্রহসনের নির্বাচন ও সদ্য অনুষ্ঠিত কারচুপির পৌর নির্বাচন থেকে জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করতেই সরকারি মদদে পুলিশি প্রটেকশনে এ হামলা চালানো হয়েছে। এ ঘটনা শুধু অনভিপ্রেতই নয়, সরকারি নীল নকশার অংশ।’

শনিবার সন্ধ্যায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে দলটির দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এ কথা বলেন।

এর আগে শনিবার বিকেল পৌনে ৪টার দিকে নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কার্যালয় দখলে নিতে যায় আসল বিএনপি দাবিদার কামরুল হাসান নাসিমের লোকজন। কিন্তু বিএনপি কার্যালয়ে আগে থেকেই অবস্থান নেয়া ছাত্রদল-যুবদল নেতাকর্মীদের ধাওয়া খেয়ে পালিয়ে যায় তারা।

রিজভী বলেন, ‘সরকারি মদদে এ হামলায় সাংবাদিকসহ ছাত্রদল ও যুবদলের ১৫ জন আহত হয়েছেন।’

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন— দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার, সহ-দপ্তর সম্পাদক আবদুল লতিফ জনি প্রমুখ।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *