ব্রিটেনের দ্বিতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন তেরেসা মে
আন্তর্জাতিক

ব্রিটেনের দ্বিতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন তেরেসা মে

ব্রিটেনের দ্বিতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন তেরেসা মেবুধবার সন্ধ্যায় ডেভিড ক্যামেরনের পদত্যাগের পরই ব্রিটেনের দ্বিতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন তেরেসা মে।

গত ২৩ জুন অনুষ্ঠিত গণভোটে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের বিচ্ছেদের পক্ষে রায় যাওয়ার পর পদত্যাগের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন।

১০নং ডাউনিং স্টিটের সামনে স্থানীয় সময় সোমবার ক্যামেরন বলেন, বাকিংহাম প্যালেসে বুধবার রানীর কাছে পদত্যাগ পত্র জমা দেবেন তিনি।

ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির নেতা নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা কমিটির প্রধান গ্রাহাম ব্রাডি বলেছেন, শিগগিরই তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে তেরেসা মে-কে দলীয় প্রধান হিসেবে ঘোষণা করবেন। এর ফলে প্রধানমন্ত্রী পদেও আসীন হবেন তেরেসা।

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার প্রতিযোগিতা থেকে সোমবার সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে যুক্তরাজ্যের বের হয়ে যাওয়ার পক্ষে প্রচার চালানো অ্যান্ড্রিয়া লিডসন।

তিনিই ছিলেন ক্যামেরনের উত্তরসূরি হওয়ার জন্য তেরেসার সর্বশেষ প্রতিদ্বন্দ্বী।

লৌহ মানবী মার্গারেট থ্যাচার ছিলেন ব্রিটেনের শেষ নারী প্রধানমন্ত্রী। তিনি ১৯৭৯ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত খুব দাপটের সঙ্গে সামলেছিলেন বিলেতের প্রশাসন। এরপরে ব্রিটেনের প্রশাসনিক মসনদে আর কোনো নারী প্রধানমন্ত্রী আসীন হয়নি।

প্রধানমন্ত্রীর পদের জন্যে সম্মুখ সমরে নেমেছেন স্বরাষ্ট্র সচিব থেরেসা মে এবং জ্বালানিমন্ত্রী আন্দ্রিয়া লিডসম। ব্রিটিশ সংসদের ৩৩০ জন টরি সদস্যের মধ্যে ১৯৯ জন ভোট করেছেন থেরেসা মে-এর পক্ষে। অন্যদিকে ৮৪ জন ভোট দিয়েছেন লিডসমকে। প্রধানমন্ত্রী পদের জন্যে প্রতিযোগিতায় ছিলেন বিচারপতি সচিব মাইকেল গোভ। মাত্র ৪৬টি ভোট পাওয়ায় তিনি বাদ পড়েছেন প্রতিযোগিতা থেকে।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *