তাসকিন-সানির বোলিং অ্যাকশন ‘অবৈধ’

তাসকিন-সানির বোলিং অ্যাকশন 'অবৈধ'

তাসকিন-সানির বোলিং অ্যাকশন 'অবৈধ'ডাচদের বিপক্ষে বাছাইপর্বের ম্যাচ শেষে পেসার তাসকিন আহমেদ ও স্পিনার আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন আম্পায়াররা। তাদের বোলিং অ্যাকশনের বিষয়ে আইসিসিকে লিখিত অভিযোগ জানান আম্পায়াররা।

বৃহস্পতিবার এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।

হাথুরুসিংহে বলেন, ‘তাসকিন ও সানির বিষয়ে গতকাল (বুধবার) রাতেই অভিযোগ এসেছে। এ বিষয়ে আইসিসি আজকে সন্ধ্যার মধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি নিশ্চিত করবে।’

এ বিষয়ে বিস্ময় প্রকাশ করে দলের কোচ হাথুরুসিংহে ধর্মশালায় এক সংবাদ সম্মেলন করে বলেছেন, ‘গত কয়েক বছর ধরে তাসকিন এবং সানি এই অ্যাকশানেই বল করে আসছে। এর আগে তো এদের বোলিং অ্যাকশান নিয়ে প্রশ্ন তোলাহয়নি। তবে এখন কেন আইসিসির পক্ষ থেকে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে?’

তিনি বলেন, ‘আইসিসির ম্যাচ রেফারি হয়তো নতুন কিছু দেখেছেন, এর চেয়ে বেশি আর কী বলতে পারি আমি? তবে আমি বিস্মিত।’

আইসিসি তাসকিন ও সানির বোলিং সন্দেহের চোখে দেখলেও তারা আত্মবিশ্বাসী রয়েছে। এমনকি বাংলাদেশের এই দুই খেলোয়াড়ের মধ্যে কোনো ভয়ও কাজ করছে না।

এ বিষয়ে চন্ডিকা বলেন, ‘সন্দেহ যাই থাকুক না কেনো। তাসকিন ও সানির মাঝে কোনরকম ভয় কাজ করছে না। কারণ তাদের অ্যাকশনে ত্রুটিপূর্ণ কিছুই দেখছি না আমরা। আশা করছি সবকিছুই ঠিকঠাক মতো হবে।’

আগামী ১৪ দিনের মধ্যে তাদের বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দিতে হবে। তবে এর মধ্যে বোলিং করে যেতে কোনো সমস্যা নেই এই দুই বোলারের। নিয়ম অনুযায়ী অভিযোগের ১৪ দিনের মধ্যে সংশ্লিষ্ট বোলারকে আইসিসি অনুমোদিত পরীক্ষাগারে অ্যাকশনের পরীক্ষা দিতে হয়।

যদি রিপোর্টে বোলিং অ্যাকশন অবৈধ প্রমাণ হয় তাহলে অ্যাকশন শোধরানো না পর্যন্ত ক্রিকেটে ফিরতে পারেন না সেই বোলার। তবে কোচ জানান আগামী ম্যাচগুলোতে খেলতে সমস্যা নেই এই দুই বোলারের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *