বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল একুশে টেলিভিশনের চেয়ারম্যান আবদুস সালামের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করা হয়েছে।
জাতীয়

তারেক-সালামের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল একুশে টেলিভিশনের চেয়ারম্যান আবদুস সালামের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করা হয়েছে।বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল একুশে টেলিভিশনের (ইটিভি) চেয়ারম্যান আবদুস সালামের বিরুদ্ধে  রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করা হয়েছে।

তেজগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বোরহান উদ্দিন বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে মামলাটি করেন।

থানা সূত্রে জানা গেছে, ইটিভিতে তারেক রহমানের বক্তব্য প্রচার করা হয়েছে, যা রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল। এই অভিযোগেই পেনাল কোডের ১২৪(এ) ধারায় মামলাটি করা হয়েছে। মামলা নম্বর ১৩।

তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘তারেক রহমান ও আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ এনে তেজগাঁও থানায় একটি মামলা করেছে পুলিশ। ইটিভিতে তারেক রহমানের রাষ্ট্রবিরোধী বক্তব্যের কারণেই মামলাটি করা হয়েছে।’

উল্লেখ্য, গত রবিবার গভীর রাতে লন্ডন থেকে তারেক রহমানের বক্তব্য সরাসরি সম্প্রচার করে একুশে টিভি। ওই বক্তব্য প্রচারের পরদিন সকাল থেকেই হঠাৎ করে একুশে টিভির অনুষ্ঠান সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।

তবে সরকারের দাবি, সরকার নয় কেবল অপারেটররা একুশে টিভির অনুষ্ঠান সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে।

এদিকে, ইটিভির চেয়ারম্যান আবদুস সালামকে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে করা মামলায় মঙ্গলবার ভোররাতে গ্রেফতার দেখানো হয়। পরে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

গত বছরের ২৬ নভেম্বর এক নারী বাদী হয়ে রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানায় পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করেন। ওই মামলায় সালামকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

ওই নারীর অভিযোগ, তাকে জড়িয়ে গত বছরের নভেম্বরে ইটিভিতে একটি অনুষ্ঠান প্রচার করা হয়।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, মামলায় চারজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। তারা হলেন— বাদীর ধর্মভাই জহিরুল ইসলাম, সাবেক স্বামী শাহ জালাল, জালালের বোনের স্বামী জাকির হোসেন ও ইটিভির সাংবাদিক মো. ইলিয়াস।

শিরোনাম ডট কম
শিরোনাম ডট কম । অনলাইন নিউজ পোর্টাল Shironaam Dot Com । An Online News Portal
http://www.shironaam.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *