রাজধানীতে মাইক্রোবাসে আদিবাসী তরুণীকে গণধর্ষণ

কুড়িল বিশ্বরোড সিনা সিএনজি মোটর স্টিল কোম্পানির সামনে থেকে গাড়ির জন্য অপেক্ষমান এক আদিবাসী তরুণীকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে অজ্ঞাত পাঁচ যুবক।

কুড়িল বিশ্বরোড সিনা সিএনজি মোটর স্টিল কোম্পানির সামনে থেকে গাড়ির জন্য অপেক্ষমান এক আদিবাসী তরুণীকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে অজ্ঞাত পাঁচ যুবক।রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোড এলাকায় সিনা সিএনজি মোটর স্টিল কোম্পানির সামনে থেকে গাড়ির জন্য অপেক্ষমান এক আদিবাসী তরুণীকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে অজ্ঞাত পাঁচ যুবক। ধর্ষিত‍া ওই তরুণী যমুনা ফিউচার পার্কের একটি শো-রুমে সেলস ম্যানের কাজ করে বলে জানা গেছে। ওই তরুণীর বাড়ি ময়মনসিংহের ফুলবাড়ি উপজেলায়।

এসআই তাপস কুমার ওঝা বলেন, ওই তরুণীকে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। পরবর্তী আইনি প্রক্রিয়া গ্রহণ করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে রাস্তার পাশে দাড়িয়ে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিল ওই তরুণী। আকস্মিক অজ্ঞাত একটি মাইক্রোবাস এসে তাকে জোরপূর্বক উঠিয়ে নিয়ে যায় এবং মাইক্রোবাসেই পালাক্রমে গণধর্ষণ করে। পরে অজ্ঞাত ওই পাঁচ যুবক তরুণীকে ধর্ষণ শেষে উত্তরা পূর্ব থানাধীন জসিম উদ্দিন রোডের মাথায় ফেলে রেখে চলে যায়।

ভাটার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) তাপস কুমার জানান, ডিউটি শেষ করে বাসায় ফেরার পথে অজ্ঞাত পাঁচ যুবক তাকে একা পেয়ে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে উত্তরায় ফেলে রেখে চলে যায়।

তিনি আরো জানান, ধর্ষিতা ওই তরুণী থানায় আছে। এ বিষয়ে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নম্বর ২৬।

ঢামেকে ‘রোগীর স্বজন’ তরুণীকে ধর্ষণ করলো আনসার সদস্য

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ করলো ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত আনসার সদস্য বকুল সরকার (২৬)।

২০ বছর বয়সী এক তরুণীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, গত ২৫ এপ্রিল পঞ্চগড় থেকে বাবাকে উন্নত চিকিৎসা করানোর জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায় ধর্ষিতা ওই তরুণী। তার সঙ্গে কেউ না থাকায় যাবতীয় সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে কাছে আসেন বকুল সরকার। পরে প্রেমের প্রস্তাব, এরপরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সে ধর্ষণ করে ওই তরুণীকে। ধর্ষিতা তরুণীর গ্রামের বাড়ি পঞ্চগড় জেলায়। ধর্ষক আনসারের বাড়ি বগুড়ায়। কিন্তু ঘটনার পর থেকেই তাকে আর কাছে না পেয়ে শংকিত ওই তরুণী শাহবাগ থানায় বকুলের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন।

আজ শুক্রবার শাহবাগ থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়।

শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মামুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ধর্ষিতার গ্রামের বাড়ি পঞ্চগড়ে। অন্যদিকে ধর্ষকের গ্রামের বাড়ি বগুড়ায়। বিষয়টি মূলত প্রেম ঘটিত ব্যাপার। প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করে আনসার সদস্য বকুল সরকার। সে ঢামেকের আনসার ক্যাম্পেই কর্মরত রয়েছে।

তিনি আরও জানান, ধর্ষণের অভিযোগে থানায় বকুল সরকারকে আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার নম্বর ২৩। তবে এখন পর্যন্ত তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *